চাহিদা অনুযায়ী শারীরিক মেলামেশা করতে না দেয়ায় স্ত্রীকে হত্যা! আদালতে জবানবন্দি

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ২৮ শুক্রবার, ২০২১, ০৪:৫২ অপরাহ্ণ
চাহিদা অনুযায়ী শারীরিক মেলামেশা করতে না দেয়ায় স্ত্রীকে হত্যা! আদালতে জবানবন্দি

এমডি অভি, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় গৃহবধূ তানজিদা আক্তার পপিকে গলা কেটে হত্যার দায় স্বীকার করেছে তার স্বামী হীরা চৌধুরী। চাহিদা অনুযায়ী শারীরিক মেলামেশা করতে না দেয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে সে তার স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করে এমন তথ্য প্রদান করে আদালতে।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ুন কবীরের আদালত ঘাতক স্বামী হীরা চৌধুরীর এ জবানবন্দি গ্রহণ করেন। পরে তাকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন।

মামলার তদন্তকারী অফিসার ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক জাকির হোসেন মাসুদ জানান, পপির ঘাতক হীরা চৌধুরীকে গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়- চাহিদা অনুযায়ী শারীরিক মেলামেশা করতে না দেয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে স্ত্রীকে হত্যা করেছে। পরে তাকে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য বললে সে সেখানেও তার হত্যার দায় স্বীকার করে। হীরা চৌধুরীর এই জবানবন্দিসহ আরও কয়েকটি বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত করে দেখা হবে হত্যার পেছনে অন্যকোন বিষয় রয়েছে কিনা।

নিহত তানজিদা আক্তার পপি (২৫) ফতুল্লার বক্তাবলী ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মৃত আলী আশরাফের মেয়ে। অপরদিকে হীরা চৌধুরী ফতুল্লার পূর্ব লামাপাড়ার এলাকার ওমর চৌধুরী তুহিনের ছেলে। তাদের সংসারে তুষার (১০) ও ফুয়াদ (৭) নামে দুটি পুত্রসন্তান রয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রকিবুজ্জামান জানান, বুধবার ভোরে নিজ বাড়িতেই হীরা চৌধুরী তার স্ত্রী পপিকে হত্যা করে। হত্যার পর ঘটনাস্থল থেকেই হীরাকে ছুরিসহ গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় বুধবার রাতেই নিহত পপির ভাই শাকিল বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]