ঘূণির্ঝড় ইয়াসের প্রভাবে ভোলায় বেরীবাধ, মৎস, কৃষিসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ৩১ সোমবার, ২০২১, ১২:৪৬ অপরাহ্ণ
ঘূণির্ঝড় ইয়াসের প্রভাবে ভোলায় বেরীবাধ, মৎস, কৃষিসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঘূণির্ঝড় ইয়াসের প্রভাবে ভোলায় বেরীবাধ, মৎস ও কৃষি,সহ ভোলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ঘুর্নিঝড় ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছাসে ভোলায় ৫১ টি ইউনিয়নের প্রায় ১৬৯২৬০ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থের হয়ে অসহায় হয়ে পরেছে।

প্রাণী সম্পদেরো হয়েছে অনেক ক্ষতি।মারা গেছে ৭ হাজার পশু, হাসি মুরগী।আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজারেরও বেশী। ঘের ও পুকুরের মাছ বিভিন্ন অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

জেলা মৎস কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম জানান মৎস খাতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে যার টাকার অংকে প্রায় ২২ কোটি ৮৪ লাখ টাকার মাছ সহ বিভিন্ন অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হয়েছে। পুকুর ২৪৩২ টি,মাছের ঘের ৫৫৬ টি, মাছ ধরার ট্রলার ৩১৫ টি, বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ৬৭৫ মে. টন,চিংড়ি ৮ মে. টন,মাছের পোনা ২০ লক্ষ্য।

এরমধ্যে ১০ কোটি ৯৭ লাখ টাকার মাছ এবং ১০ কোটি টাকার অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

জেলা মৎস্য অফিস জানিয়েছে, ঝড়ে সৃষ্ট জোয়ারে জেলার সাত উপজেলায় ৩ হাজার ১৮টি পুকুর-ঘের ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। যার আয়তন ৪৩৭ হেক্টর। ভেসে গেছে ৬৮৩ মেট্রিক টন মাছ ও ১৬ লাখ মাছের পোনা। ইয়াসের প্রভাবে সাগরের জোয়ারের চাপে উপকূলীয় নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়ে বন্যা নিয়ন্ত্রনে বাধ,নদী তীর রক্ষ্যা বাধের আংশিক ক্ষতি হয়েছে।

বাপাউবো এর ভোলা ডিভিশন ১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাসানুজ্জামান বলেন ভোলা সদর, বোরহাউদ্দিন, দৌলতখানে ইয়াসের প্রভাবে ৮.৩ কিঃ মিঃ বাধের ক্ষতি হয়েছে।আর্থিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় ১৮ কোটিরও বেশী হতে পারে।

বোরহানউদ্দিন ২০ মিঃ বেরীবাধের ছুটে গিয়েছিল সেটা তাৎক্ষনিক মেরামত করে দেয়া হয়েছে।বাপাউবো ডিভিশন ২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী হাসান মাহমুদ ও উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ ছালাউদ্দিন জানান মনপুরা ৭ কিঃমিঃ,লালমোহনে ৩ কিঃ মিঃ,তজুমুদ্দিন ৪ কিঃমিঃ ও চরফ্যাশনে ২ কিঃ মিঃ বেরীবাধের ক্ষতি হয়েছে যার আর্থিক মূল্য প্রায় ২৬ কোটি টাকার মত।তবে বাপাউবো এর এক কর্মকর্তা জানান এভাবে ঘূনিঝড় হবে আর জরুরী ভাবে মেরামত করে স্থায়ী কোন সুফল আসবে না।

বরং এতে দেশের আর্থীক ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।তার চেয়ে বরং টেকসই বাধের একান্ত প্রয়োজন ভোলা জেলা রক্ষার জন্য। তিনি আরো বলেন ভোলায় বেরীবাধের বর্তমান যে অবস্থা জোরালো কোন ঝড় হলে কোন বেরীবাধই টিকবে না।

জেলা ত্রান কর্মকর্তা মোঃ মোতাহার হোসেন জানান ঘূর্নিঝড় ইয়াসের প্রভাবে ভোলায় অনেক ক্ষতি হয়েছে।আর্থিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির নিরুপনের কাজ চলছে। সঠিক তথ্য পেলে বলা যাবে।

ভোলা জেলা প্রশাসক মোঃ তৌফিক – ই – লাহী জানান পানির চাপে ভোলায় মৎস,কৃষি,গবাদীপুশু, পানের বরজ, শাক সবজি, রাস্তাঘাট,বেরীবাধসহ বিভিন্ন অবকাঠামোর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]