উদ্বোধণের অপেক্ষায় বেকুটিয়া সেতু

Barisal Crime Trace -FF
প্রকাশিত জুলাই ৪ সোমবার, ২০২২, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ
উদ্বোধণের অপেক্ষায় বেকুটিয়া সেতু

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল : স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর একের পর এক চমকের খবর আসছে বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলবাসীর জন্য। এবার বাউফলের লোহালিয়া নদীর বগা পয়েন্টে নির্মিত হতে যাচ্ছে নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু। ইতোমধ্যে চীন সরকারের সাথে এ বিষয়ে একটি চুক্তি সম্পাদন করা হয়েছে। বর্তমানে সেতুটি টেন্ডার প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

বাউফল ও দশমিনার সাথে পটুয়াখালী, বরিশাল ও ঢাকার সড়ক পথে যাতায়াতের জন্য লোহালিয়া নদীর বগা পয়েন্টের ওপর একটি সেতু নির্মাণের জন্য এলাকার মানুষ দীর্ঘদিন ধরে দাবী জানিয়ে আসছিলেন।

এ পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের প্রচেষ্টায় চীনের সেতু বিভাগের একটি প্রতিনিধি দল বাউফলের বগা নদীর ওপর সেতু নির্মাণের প্রয়োজনীয়তা যাচাই-বাছাই করেছেন। তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন, জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ ও সরকারী প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি আ.স.ম ফিরোজ এমপি’র এপিএস আনিছুর রহমান।

সূত্রমতে, এ সেতুটি নির্মিত হলে দক্ষিণাঞ্চলের সাথে মহাসড়ক নেটওয়ার্ক শক্তিশালী হবে। পাশাপাশি নির্মান কাজ শেষে উদ্বোধণের অপেক্ষায় রয়েছে বরিশাল-খুলনা আঞ্চলিক মহাসড়কের পিরোজপুরের বেকুটিয়া পয়েন্টের কচা নদীর ওপর নির্মিত অস্টম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু। স্থানীয়ভাবে বেকুটিয়া সেতু নামে পরিচিত এ সেতুটি উদ্বোধনের পর যশোর থেকে শুরু করে ভোলা পর্যন্ত কোটি মানুষের মুখে হাসি ফোটাবে।

দীর্ঘদিনের সীমাহীন দুর্ভোগ লাঘব হবে এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের। এই সেতুর উদ্বোধণ হলে বরিশাল আর খুলনার সড়কপথে আর কোন ফেরি থাকবে না। একইসাথে দেশের একমাত্র গভীর সমুদ্র বন্দর পায়রা এবং সমুদ্র সৈকত সাগরকন্যা কুয়াকাটার সাথে সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল এবং সমুদ্র বন্দর মোংলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপন করবে বেকুটিয়া সেতু।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, এরপূর্বে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক দিয়ে সাগরকন্যা কুয়াকাটার সাথে ফেরীবিহীন সড়কপথে সরাসরি যোগাযোগের জন্য নির্মিত হয়েছে ব্যয় বহুল সাতটি সেতু। সেগুলো হলো-বরিশালের উজিরপুরে এমএ জলিল সেতু, বাবুগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতু, বরিশাল নগরী সংলগ্ন শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতু, পায়রা সেতু, শহীদ শেখ জামাল, শেখ কামাল ও শেখ রাসেল সেতু। এছাড়াও অভ্যন্তরীন সড়কগুলোতে নির্মিত হয়েছে অসংখ্য সেতু।

সূত্রমতে, এসব জনগুরুত্বপূর্ণ সেতুগুলো নির্মিত হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলেই। একসময়ের অবহেলিত সম্ভাবনাময় দক্ষিণাঞ্চলাবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বপ্রথম যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি করেছেন। সর্বশেষ দক্ষিণাঞ্চলাবাসীর জন্য নতুন সু-খবর হচ্ছে-দেশের সর্বদক্ষিণের জেলা পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বগা পয়েন্টের লোহালিয়া নদীতে নির্মিত হতে যাচ্ছে নবম চীন-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু। এ সেতুটি নির্মিত হলে গলাচিপা, দশমিনা ও বাউফলের প্রায় ১৫ লাখ মানুষের স্বপ্ন পূরণের পাশাপাশি এ অঞ্চলের মানুষ দিনের কাজ দিনে শেষ করে পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফিরতে পারবেন।

পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাউফল পৌরসভার মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল বলেন, বগা পয়েন্টের লোহালিয়া নদীতে নবম চীন-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতু নির্মিত হলে গলাচিপা, দশমিনা ও বাউফল উপজেলার প্রায় ১৫ লাখ মানুষের স্বপ্ন পূরণ হবে। এ অঞ্চলের মানুষ ফেরীর চরম ভোগান্তি থেকে মুক্ত হয়ে সহজে দক্ষিণের বিভিন্ন জেলাসহ রাজধানী ঢাকার সাথে সরাসরি যাতায়াত করতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বদৌলতে ইতোমধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের অসংখ্য নদীর ওপর সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলবাসীর স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধণের পর এ অঞ্চলের ব্যবসা বাণিজ্যের বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটতে শুরু করেছে। বাউফলের বগা পয়েন্টে লোহালিয়া নদীতে সেতু নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহন করায় তিনি (জুয়েল) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ ও সরকারী প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি আ.স.ম ফিরোজ এমপি’র এপিএস আনিছুর রহমান বলেন, বেকুটিয়ায় অস্টম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর নির্মান কাজ শেষে বর্তমানে উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। এ সেতুটি উদ্বোধনের পর পরই বগার লোহালিয়া নদীতে নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে। ইতোমধ্যে এ সেতুর নির্মাণ সংক্রান্ত একটি পত্র সচিব ইআরডি বরাবরে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, লেবুখালী-বাউফল-দশমিনা-গলাচিপা-আমরাছিয়া সড়কের লোহালিয়া নদীর বগা পয়েন্ট এক হাজার ২০ মিটার দৈর্ঘ্যের নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু নির্মাণের জন্য বিগত ২০১৭ সালের ১১ মে বাংলাদেশ সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব এবং চীনা রাষ্ট্রদূতের মধ্যে আরএমবি ইউয়ান অনুদান চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে,

বেকুটিয়ায় অস্টম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর কাজ শুরু হওয়ার পর বাউফলের বগা পয়েন্টে লোহালিয়া নদীতে নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু নির্মাণের লক্ষ্যে ডিটেইল ডিজাইন জিএস কম্পোনেন্ট ওয়াইজ ডিটেইল ইঞ্জিনিয়ারস এস্টিমেট তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

যেকারণে বর্তমানে বেকুটিয়ার অস্টম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর অগ্রগতি কাঙ্খিত পর্যায়ে উন্নীত হওয়ায়, বগা পয়েন্টের লোহালিয়া নদীতে নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু নির্মাণের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য সচিব ইআরডি বরাবরে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। সে অনুযায়ী অতিসম্প্রতি ইআরডি’র সচিব কার্যক্রম শুরু করেছেন।

এ ব্যাপারে জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ ও সরকারী প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি আ.স.ম ফিরোজ এমপি বলেন, বগা পয়েন্টের লোহালিয়া নদীতে নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু নির্মানের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরও বলেন, অতীতের কোন সরকারই দক্ষিণাঞ্চলসহ সারাদেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসেনি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠণের পর থেকেই সমগ্র বাংলাদেশসহ একসময়ের অবহেলিত দক্ষিণাঞ্চলবাসীর ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটেছে। তিনি আরও বলেন “এ দেশে আওয়ামী লীগ সরকার ও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনা আছেন যতোদিন, উন্নয়ন হবে ততোদিন”।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]