অস্ট্রেলিয়াকে তাদেরই মাটিতে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো জিম্বাবুয়ে


ebdn প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৩, ২০২২, ১:২৯ অপরাহ্ণ /
অস্ট্রেলিয়াকে তাদেরই মাটিতে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো জিম্বাবুয়ে

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপ সুপার লিগের ম্যাচে অবিশ্বাস্য ঘটনার জন্ম দিলো জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। মহাপরাক্রমশালী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে মূল্যবান ১০টি পয়েন্ট আদায় করে নিলো তারা। সিরিজের শেষ ম্যাচে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর মিশনে খেলতে নেমে ৩ উইকেটে জিতেছে রেগিস চাকাভার দল।

 

নিজেদের ইতিহাসে এই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ জিতলো জিম্বাবুয়ে। এর আগে খেলা ১৫ ম্যাচের একটিতেও অসিদের বিপক্ষে তেমন প্রতিদ্বন্দ্বিতাও গড়তে পারেনি তারা। এবার স্বাগতিকদের ১৪১ রানে গুটিয়ে দিয়ে ম্যাচ জিতে নিলো জিম্বাবুইয়ানরা।

শুধু তাই নয়, অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে যেকোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ২১ বছর জিতলো জিম্বাবুয়ে। সবশেষ ২০০১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হারিয়েছিল তারা। এবার স্বাগতিকদের হারিয়ে নতুন ইতিহাসই গড়লো সুপার লিগে ধুঁকতে থাকা দলটি।

 

জিম্বাবুয়ের এ জয়ের বেশ ক্ষতিই হলো অস্ট্রেলিয়ার। সুপার লিগে এখন পর্যন্ত পাঁচ সিরিজের ১৫ ম্যাচে নয়টি জিতে ৯০ পয়েন্ট পেয়েছে অসিরা। তাদের অবস্থান সাত নম্বরে। অন্যদিকে সাত সিরিজে মাত্র চার ম্যাচ জিতে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে নিচ থেকে দুই নম্বরে রয়েছে জিম্বাবুয়ে।

 

অস্ট্রেলিয়াকে মাত্র ১৪১ রানে আটকে রেখে জয়ের সিংহভাগ কাজ করে দিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ের বোলাররাই। লেগ স্পিনে মাত্র ৩ ওভারে ১০ রান খরচায় ৫ উইকেট নেন রায়ান বার্ল, ব্র্যাড ইভান্সের শিকার দুই উইকেট। অসিদের পক্ষে ডেভিড ওয়ার্নার একাই করেন ৯৪ রান।

 

পরে রান তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ের শুরুটা ছিল বেশ আত্মবিশ্বাসী। উদ্বোধনী জুটিতে ৩৮ রান যোগ করেন তাকুদজওয়ানাশে কাইতানো ও তাদিওয়ানাশে মারুমানি। কাইতানো ১৯ ও মারুমারি ৩৫ রান করে আউট হয়ে গেলে পরাজয়ের শঙ্কায় পড়ে যায় জিম্বাবুয়ে।

ব্যাট হাতে পুরোপুরি হতাশ করেন ওয়েসলে মাধভের (২), শন উইলিয়ামস (০) ও সিকান্দার (৮)। মাত্র ৭৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় সফরকারীরা। তবে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দেন অধিনায়ক চাকাভা। তাকে সঙ্গ দেন টনি মুনিয়োঙ্গা ও রায়ান বার্ল।

 

প্রথমে মুনিয়োঙ্গা ও চাকাভা গড়েন ৩৮ রানের মহাগুরুত্বপূর্ণ ষষ্ঠ উইকেট জুটি। মুনিয়োঙ্গা ১৭ রান করে আউট হলেও বার্লকে নিয়ে এগোতে থাকেন চাকাভা। জয়ের জন্য পাঁচ বাকি থাকতে ১১ রান করে আউট হয়ে যান আজকের ম্যাচের নায়ক রায়ান বার্ল।

 

অপরপ্রান্তে সতীর্থরা চলে গেলেও, দৃঢ় ব্যাটে জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন চাকাভা। জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ৭২ বলে ৩৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ডানহাতি পেসার জশ হ্যাজলউড নেন তিনটি উইকেট।