১৫শ রানে বিশ্বের সবচেয়ে ‘বাজে’ মুশফিক


ebdn প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৩, ২০২২, ৪:১২ অপরাহ্ণ /
১৫শ রানে বিশ্বের সবচেয়ে ‘বাজে’ মুশফিক

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আফগানিস্তানের পর শ্রীলঙ্কার কাছেও হেরে সবার আগে এশিয়া কাপ থেকে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ দল। চরম হতাশাময় টুর্নামেন্ট কাটিয়ে শনিবার সকালে দেশে ফিরে এসেছে জাতীয় দল। বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কার কাছে হারের ম্যাচে ব্যক্তিগত এক মাইলফলক স্পর্শ করেছেন মুশফিকুর রহিম।

 

বাংলাদেশের বিদায় নেওয়ার দিন ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ ছিলেন মুশফিক। আগের ম্যাচে ১ রান করার পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আউট হন মাত্র ৪ রান করে। দুই ম্যাচে করা এই ৫ রানের সুবাদে বাংলাদেশের চতুর্থ ও বিশ্বের ৪৬তম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১৫শ রান পূরণ করেছেন মুশফিক।

তবে এই মাইলফলকে খুশি হওয়ার উপায় নেই একদমই। কেননা এই ফরম্যাটে অন্তত ১৫শ রান করা বিশ্বের ৪৬ জন ব্যাটারের মধ্যে সবচেয়ে বাজে অবস্থা মুশফিকেরই। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১৫শ রান করতে তিনি খেলেছেন ১০২টি ম্যাচ।

 

বিশ্বের আর কোনো ক্রিকেটারকে ১৫শ রানের জন্য এত বেশি ম্যাচ খেলতে হয়নি। শুধু তাই নয়, ১৫শ রান করা ব্যাটারের মধ্যে মুশফিকই একমাত্র, যার ব্যাটিং গড় ২০-র নিচে। তিনি এই ১৫শ রান করেছেন মাত্র ১৯.৪৮ গড়ে। বাকি ৪৫ ব্যাটারের সবাই অন্তত ২০ গড়ে রান করেছেন।

 

অনেকসময় দ্রুত রান তোলার তাগিদের গড়ের দিকে নজর দেওয়া যায় না। সেক্ষেত্রে দেখা যায় গড় কম হলেও স্ট্রাইকরেট থাকে আকাশচুম্বী। মুশফিকের ক্ষেত্রে সেটিও নয়। অন্তত ১৫শ রান করা ব্যাটারদের মধ্যে মুশফিকের স্ট্রাইকরেটও সবচেয়ে কম।

 

তিনি ১০২ ম্যাচের ক্যারিয়ারে ১৯.৪৮ গড়ে ১৫শ রান করেছেন মাত্র ১১৫.০৩ স্ট্রাইকরেটে। তার চেয়ে কম রেটে ব্যাটিং করেননি আর কোনো ব্যাটার। অবশ্য স্ট্রাইকরেট কম থাকার দোষে মুশফিক একাই দুষ্ট নন, বাংলাদেশের সব ব্যাটারেরই আছে এই সমস্যা।

 

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অন্তত ১৫শ রান করা ব্যাটারদের মধ্যে সবচেয়ে কম স্ট্রাইকরেটের তালিকায় সাতজনের মধ্যে চারজনই বাংলাদেশের। তামিম ইকবাল ১১৬.৯৬, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১১৭.৩০ ও সাকিব আল হাসান রান করেছেন ১২০.৭২ স্ট্রাইকরেটে।

 

মুশফিকের এই নাজুক পরিসংখ্যানের পরেও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে তার প্রশংসা করছিলেন সাবেক বাংলাদেশি ক্রিকেটার ও প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার আতহার আলি খান। তবে সঙ্গে সঙ্গে তার ভুল ধরিয়ে দেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরাম।

 

ইনিংসের সপ্তম ওভারে মুশফিক উইকেটে যাওয়ার পর স্ক্রিনে ভেসে ওঠে তার ক্যারিয়ার পরিসংখ্যান। যেখানে দেখা যায় ১০২তম ম্যাচ খেলতে নামা মুশফিক ১৯.৭ গড় ও ১১৫.০৩ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ১৪৯৬ রান। এটি দেখার পরও তার প্রশংসা করেন আতহার।

 

তিনি বলেন, ‘মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের পক্ষে কাজ করতে পারে। মুশফিকের পরিসংখ্যান দেখুন। একশর বেশি ম্যাচ খেলেছেন, ১৫শ রানের কাছাকাছি আছেন এবং স্ট্রাইকরেট ১১৫।

 

আতহারের এ কথা শুনে ওয়াসিম বলেন, ‘সত্যি বলতে খুব ভালো স্ট্রাইকরেট নয়। সে একজন অভিজ্ঞ তারকা। তার সত্যিই অনেক অভিজ্ঞতা। কিন্তু বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের স্ট্রাইকরেটের দিকে তাকালে… আমার মতে এটি ১৩০ হওয়া উচিত। এই ফরম্যাটের জন্য আদর্শ।