সুমাইয়ার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন ইউএনও


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৪, ২০২২, ৪:১৯ অপরাহ্ণ /
সুমাইয়ার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন ইউএনও

স্টাফ রিপোর্টার, বাকেরগঞ্জ : বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার ৮ নং ওয়ার্ডের ৫ বছর বয়সে বাবাকে হারিয়ে গ্রামীণ জনপদে ভিক্ষা করে ৭ বছরের সুমাইয়া। ভিক্ষা করেই এই শিশুটিকে নিজের ও পরিবারের মুখে খাবার তুলে দিতে হয়।

গত ২ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টায় বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডে ভিক্ষার ঝুলি হাতে নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে শিশু সুমাইয়া। বিষয়টি নিয়ে পত্রিকায় “ভিক্ষা করে সংসার চালায় শিশু সুমাইয়া” শিরোনামে গত ৩ সেপ্টেম্বর সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

সংবাদটি উপজেলা প্রশাসনের নজরে আসলে রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় সুমাইয়ার বাড়িতে চলে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সজল চন্দ্র শীল ও উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার আরিফুর রহমান। এসময় সুমাইয়ার অসুস্থ পিতার হাতে দুই ব্যাগে শিশু খাদ্য তুলে দেন ও উপজেলা সমাজ কল্যান তহবিল থেকে চিকিৎসা বাবদ ৫ হাজার টাকা উপজেলা অফিস থেকে গ্রহণ করতে বলেন।

পাশাপাশি শিশু সুমাইয়ার লেখাপরার দায়িত্ব নেন ইউএনও। সুমাইয়ার পরিবারের যাতে ভিক্ষা করতে না হয় এজন্য প্রতিমাসে ভিজিডি কার্ডের ৩০ কেজি চাল ও ঘর না থাকায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের একটি ঘর দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

সুমাইয়ার বয়স জখন ৫ বছর তখন তার পিতা খোকন স্ট্রোক করে মারা যান। সুমাইয়ার মা মুকুল বেগমের তখন দুই কন্যা সুমাইয়া ও হালিমাকে নিয়ে অসহায় হয়ে পরে। কোনো উপায়ান্তর না পেয়ে বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের ভ্যানগাড়ী চালক আলমগীর হোসেন এর সঙ্গে দ্বিতীয় বিয়ে আবদ্ধ হয়।

এই ঘরেও তার দুই কন্যা সন্তান রয়েছে। সুমাইয়ার দ্বিতীয় পিতা আলমগীর হোসেন সড়ক দুর্ঘটনায় দীর্ঘদিন শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছেন। কর্মহীন হয়ে পরে তার পিতা। পরে ছয়জনের সংসারের হাল ধরে শিশুকন্যা সুমাইয়া।