শেখ হাসিনার সরকার আমলে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবে না- শ ম রেজাউল করীম

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত জুন ১২ শনিবার, ২০২১, ০৬:৩৬ অপরাহ্ণ
শেখ হাসিনার সরকার আমলে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবে না- শ ম রেজাউল করীম

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার সর্বদা গৃহহীন ও ক্ষুধার্ত মানুষের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। তার অঙ্গীকার এ দেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না। নদী ভাঙনের শিকার হয়ে যারা গৃহহারা হয়েছেন বর্তমান সরকার অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সে সব পরিবারকে পুনর্বাসন ব্যবস্থা করছে। মন্ত্রী বলেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাজার হাজার ভূমিহীন ও দরিদ্র পরিবারকে ঘর উপহার দিচ্ছেন।

শনিবার দুপুরে নেছারাবাদ উপজেলার ইন্দুরহাট সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীর ভাঙন রোধে বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলানো কাজের উদ্বোধন উপলক্ষে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, যার জমি আছে ঘর নেই তাকে ঘর করে দিচ্ছেন। যার জমিও নাই ঘরও নাই তাকে তিনি জমি ঘর দিচ্ছেন। বৈশ্বিক মহামারির মধ্যেও অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার লাখ লাখ দরিদ্র মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের এখনও একশটি দেশে করোনা ভ্যাকসিন পায়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার করোনা ভ্যাকসিন এনেছেন। তিনি বলেন, নদী ভাঙনের কারণে মানুষ জমি জমা হারাচ্ছে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সজাগ দৃষ্টি রয়েছে বলেই নদী ভাঙন মোকাবেলায় প্রতি বছর শত শত কোটি টাকা ব্যয় করছেন।

এর আগে মন্ত্রী সরকারী স্বরূপকাঠি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রাণী সম্পদ মেলার উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্য বলেন, আমরা প্রাণী সম্পদ খাত বিকাশের জন্য অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করে কাজ করছি। যে কারণে অতীতের তুলনায় বর্তমানে দেশে দুধ, মাংস ও ডিমের উৎপাদন কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রাণী সম্পদ সেক্টরে এত বিকাশ ঘটেছে যে, এখন কোরবানির জন্য ভারত থেকে আমাদের আর গরু,মহিষ আনতে হয়না। শনিবার দুপুরে নেছারাবাদ উপজেলায় সরকারি স্বরূপকাঠি পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য মন্ত্রী কথাগুলো বলেন। নেছারাবাদ উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় এবং উপজেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তর ও ভেটোনারি হাসপাতালের আয়োজনে ওই প্রদর্শনী শুরু হয়।

মন্ত্রী বলেন, এখন দেশিয় খামারে এত পরিমাণ গরু উৎপাদন হচ্ছে যে কারণে কোরবানি ঈদে বিক্রির পরেও গরু মহিষ অবিক্রীত থেকে যাচ্ছে। বেসরকারি পর্যায়ে প্রচুর পরিমাণ গরু,মহিষ উৎপাদন বৃদ্ধির ফলে গত দুই ঈদ ধরে কোরবানিযোগ্য গবাদিপশু এখন আর বাহির থেকে আনতে হয়না। আর সব উন্নয়ন হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐকান্তিক ইচ্ছা ও উদ্যোগেই দেশে প্রথম প্রাণী সম্পদ খাতে আধুনিকতার ছোঁয়া আসে। তার চেষ্টায় দেশে গবাদিপশুতে যুগান্তকারী কৃত্রিম প্রজনন প্রযুক্তি প্রবর্তন আসে। তা ব্যাপকভাবে সম্প্রসারণের মাধ্যমে গবাদিপশুর জাত উন্নয়ন ও উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির বহুমাত্রিক কার্যক্রম গ্রহণ করার ফলে দেশি গরুর উন্নয়ন ঘটেছে। মন্ত্রী বলেন শেখ হাসিনা সরকারের আমলে একটি একটি মানুষও না খেয়ে থাকেনা।

মন্ত্রী আরো বলেন, প্রাণী সম্পদ খাতে দেশে আরো উদ্যোক্তা সরকার সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে। বিনামূল্যে গরুর বীজ,মাছের পোনা,মুরগীর বাচ্চা দেয়া হয়ে হচ্ছে। যাতে শিক্ষিত বেকার যুবকরা এ পেশায় নিজেকে জড়িয়ে নিজে নিজে স্বাবলম্বী হয়ে ওঠে। কোন শিক্ষিত বেকার যেন চাকরি কণ্যা অন্যর কাছে ধর্না না দেয়। উল্টো কাজের জন্য অন্যরা যেন তাদের কাছে এসে ধর্না দেয়।

নেছারাবাদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে বক্ত্যা রাখেন, বিশেষ অতিথি পিরোজপুর জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন ভূঞা, নেছারাবাদ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক, স্বরূপকাঠি পৌর মেয়র গোলাম কবির, উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক এস,এম ফুয়াদ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাজী সাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]