রানি এলিজাবেথ যেসব গয়না ব্যবহার করতেন


Barisal Crime Trace -GF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২, ৬:৪৬ অপরাহ্ণ /
রানি এলিজাবেথ যেসব গয়না ব্যবহার করতেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ব্রিটেনের দীর্ঘতম রাজত্বকারী শাসক রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বৃহস্পতিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার মৃত্যুতে সে দেশে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। শুধু ব্রিটেনই নয় বরং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে রানির মৃত্যুতে।

 

 

৯৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তিনি খুবই সক্রিয় ও শক্তাশালী ছিলেন বটে। এ বয়সেও শারীরিকভাবে ফিট ছিলেন রানি। তার ফিটনেস থেকে শুরু করে উন্নত জীবনযাপন, ফ্যাশন ইত্যাদি বিষয় সবাইকেই অনুপ্রাণীত করেছে।

রানির ফ্যাশনে যেমন বৈচিত্র ছিল, ঠিক তেমনই তার ব্যবহৃত গয়না দেখলেও আপনি অবাক হয়ে যাবেন। অনেকেরই হয়তো জানা নেই রানি কেমন গয়না ব্যবহার করতেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক রানির ব্যবহৃত গয়নার মধ্যে কী কী ছিল-

 

ইম্পেরিয়াল স্টেট ক্রাউন

কোহিনূর বিশ্বের বৃহত্তম কাটা হীরাগুলোর মধ্যে একটি। বর্তমানে ইম্পেরিয়াল স্টেট ক্রাউনে স্থাপন করা হয়েছে। যা মূলত ১৯৩৭ সালে রাজা ষষ্ঠ জর্জের রাজ্যাভিষেকের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। ২০১৬ এর স্টেট ওপেনিংয়ের জন্য রানিকে শেষবার এটি পরতে দেখা গেছে।

ইম্পেরিয়াল স্টেট ক্রাউনে ২ হাজার ৮৬৮টি কাটা হীরা, ১৭টি নীলকান্তমণি, ১১টি পান্না ও ২৬৯টি মুক্তা আছে। তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানান, ‘এই ক্রাউন এতোটাই ভারি যে এটি মাথায় পরে নিচের দিকে তাকানো কষ্টকর।

 

দিল্লি দরবার নেকলেস

রানির সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদগুলোর মধ্যে আরও একটি ছিল অসাধারণ দিল্লি দরবার নেকলেস। যা মূলত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তার দাদির কাছ থেকে পেয়েছিলেন। ৯টি পান্নায় তৈরি এই নেকলেসে আরও আছে কুলিনান হীরা থেকে কাটা ৮.৮ ক্যারেটের হীরা। এই লেকলেসে বসানো কুলিনান হীরাটি এখন পর্যন্ত পাওয়া বৃহত্তম হীরা বলে মনে করা হয়।

 

১৯১১ সালে ভারতে একটি বিশাল উদযাপনে নেকলেসটি দিল্লি দরবারের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। দ্য কোর্ট জুয়েলারের মতে, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এটি উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়েছিলেন।

 

আলবার্ট ব্রোচ

নীলকান্তমণি ও ৫ হীরার ক্লাস্টার অ্যালবার্ট ব্রোচ শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত রানি এলিজাবেথের প্রিয় ছিল। এটি ১৮৪৯ সালে প্রিন্স আলবেরি তার স্ত্রী ভিক্টোরিয়াকে উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

 

উইলিয়ামসন পিঙ্ক ডায়মন্ড

jagonews24

৫৪.৫ ক্যারেট গোলাপি হীরা দিয়ে একটি ফুলের ব্রোচ তৈরি করেছিলেন কার্টিয়ার। এই পোলাপি রত্ন এলিজাবেথ কানাডিয়ান রত্নবিদ জন থরবার্ন উইলিয়ামসনের কাছ থেকে বিবাহের উপহার হিসেবে পেয়েছিলেন।

 

কার্টিয়ার এতে ২০৩টি সাদা হীরা দিয়ে সেট করে একটি সুন্দর ব্রোচ তৈরি করেন। এটিও রানি প্রায়শিই পরতেন।

ডাবল ক্লিপ ব্রোচ

 

উইন্ডসর ক্যাসেলে ‘ভিই দিবসের ৭৫তম বার্ষিকী’তে রানিকে জনপ্রিয় ডাবল ক্লিপ ব্রোচ পরতে দেখা যায়। ব্রোচটি কেন্টের ডিউক, যিনি রানির চাচা ছিলেন তিনি নাকি ১৯৩৭ সালে কিনেছিলেন বলে জানা গেছে।

 

সৌদি আরবের বাদশাহ ফয়সাল নেকলেস

সৌদি আরবের বাদশাহ ফয়সাল ও বাদশাহ খালিদ আমেরিকান জুয়েলারি হাউস হ্যারি উইনস্টন থেকে রানিকে হীরার নেকলেস উপহার দেন।

 

সৌদি আরবের রাজা ফয়সাল ১৯৬৭ সালে যুক্তরাজ্যে রাষ্ট্রীয় সফরকালে রানিকে এই নেকলেস উপহার দেন। এতে ৮০ ক্যারেট ওজনের ৩০০টি হীরা আছে।

 

হায়দ্রাবাদ নেকলেসের নিজাম

 

রানির সবচেয়ে আইকনিক নেকপিসগুলোর মধ্যে একটি ছিল হায়দ্রাবাদের নিজাম। ১৯৪৭ সালে রানি বিবাহের উপহার হিসেবে এটি উপহার পান।

 

হায়দ্রাবাদের শাসক (বা নিজাম) আসফ জাহ সপ্তম রানি দ্বিতীয় এই লেকলেস উপহারদেন। প্ল্যাটিনামের এই নেকলেসে প্রায় ৩০০ হীরা আছে।

হায়দ্রাবাদ টায়রা

 

হায়দ্রাবাদের নিজাম রানিকে বিখ্যাত হায়দ্রাবাদ টায়রা উপহার দিয়েছিলেন। যার নকশা ছিল ৩টি বড় গোলাপ ও লতাপাতা। এই টায়রাতেও প্ল্যাটিনামের উপর হীরা বসানো ছিল।

রাজ্যের ডায়ডেম মুকুট

 

দ্য স্টেট ডায়ডেম নামক হীরার মুকুট ১৮২০ সালে রানি ভিক্টোরিয়ার চাচা রাজা চতুর্থ জর্জের রাজ্যাভিষেকের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। এটি ঐতিহ্যগতভাবে পার্লামেন্টের রাষ্ট্রীয় উদ্বোধনে রানি পরতেন। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া