মাদারীপুরে লজ্জায় ফাঁস নিলেন গৃহবধূ


Barisal Crime Trace -HR প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২, ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ /
মাদারীপুরে লজ্জায় ফাঁস নিলেন গৃহবধূ

ক্রাইম ট্রেস ডেস্ক ।। মাদারীপুরে সাবিহা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

 

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সদর উপজেলার কলেজ রোড এলাকার ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

 

সাবিহা বেগম কালকিনি উপজেলার মিয়ারহাট ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের বোরহান সরদারের মেয়ে। তার স্বামীর নাম ইসমাইল সরদার। সাবিহা বেগমের ১৫ মাসের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

 

 

এলাকাবাসী ও সাবিহার স্বামীর অভিযোগ, সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় কালকিনি উপজেলার মিয়ারহাট ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকার রবিন ফারহানের সঙ্গে সাবিহার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ইসমাইল সরদারের সঙ্গে সাবিহার বিয়ের পর মাদারীপুর সদর উপজেলা কলেজ রোড এলাকার ভাড়াটিয়া বাসায় মাঝে মাঝে আসতেন রবিন।

 

সাবিহার স্বামী শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে যখন বাসায় আসেন তখন রবিন তার বাসা থেকে বের হন। রবিনের বাসায় আশা-যাওয়ার বিষয়টি প্রতিবেশীরা তার স্বামীকে বলে দেন। এতে লজ্জায় সাবিহা ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস নেন। এরপর তাকে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসা রোবায়েত ইবনে হাবিব বলেন, হাসপাতালে আনার পর আমরা তাকে মৃত অবস্থায় পেয়েছি।

 

সাবিহা বেগমের স্বামী ইসমাইল সরদার বলেন, রবিন আমার বাসা থেকে বের হওয়ার সময় আমার সঙ্গে দেখা হয়। আমি এ কথা জিজ্ঞাসা করার কারণে আমার স্ত্রী লজ্জায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। আমি রবিনের ফাঁসি চাই।

 

 

সাবিহার মা কুলসুম বলেন, রবিনের কারণে আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। আমি রবিনের ফাঁসি চাই।

 

মাদারীপুর সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।