মুলাদীতে অনুমতি ছাড়া স্কুলের মালামাল বিক্রি, তদন্ত শুরু


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২, ১২:০৬ অপরাহ্ণ /
মুলাদীতে অনুমতি ছাড়া স্কুলের মালামাল বিক্রি, তদন্ত শুরু

স্টাফ রিপোর্টার, মুলাদী : বরিশালের মুলাদীতে গোপনে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মালামাল বিক্রির ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রিয়াজ আলম তদন্তকাজ শুরু করেন। প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে এবং বিক্রি হওয়ায় মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের ৬ নম্বর চরবাটামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মালামাল নেওয়ার সময় স্থানীয়রা দুজনকে আটক করেন। পরে তাঁরা দাবি করেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আতাউর রহমান বিদ্যালয়ের পুরোনো বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিল, জানালার গ্রিল তাঁদের কাছে বিক্রি করেছেন।

স্কুলের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মো. সাখাওয়াত মৃধা জানান, প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান বিদ্যালয়ের পুরোনো মালামাল গোপনে বিক্রি করে দিয়েছেন। শুক্রবার দুপুরের দিকে ক্রেতারা প্রধান শিক্ষকের উপস্থিতিতে ভ্যানগাড়িতে করে মালামাল নেওয়ার সময় স্থানীয়রা ভ্যান ও মালামালসহ দুজনকে আটক করেন। পরে তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া সরকারি মালামাল বিক্রির সুযোগ নেই। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নির্দেশে ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং অবৈধভাবে বিক্রি করা মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আতাউর জানান, বিদ্যালয়ে রাখা পুরোনো মালামালগুলো বিক্রির বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।