টাকার অভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না জাবেদের


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২, ২:১৩ অপরাহ্ণ /
টাকার অভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না জাবেদের

হাসান পিন্টু, লালমোহন : মো. জাবেদ হোসেন। বয়স প্রায় ২৮। পরিবারে অভাব-অনটনের সংসারে এখন বোঝা সে। গত এক বছর ধরে বিছানা থেকে উঠে চলফেরা করতে পারছে না জাবেদ। শুকিয়ে গেছে হাত-পা। তবে কি জন্য এ অবস্থা শরীরের তাও ঠিকমত বলতে পারছেন তিনি। কারণ অভাবের সংসারে অর্থ সংকটে ছেলের চিকিৎসা করাতে পারছেন বাব-মা। তার বাবা পেশায় একজন কৃষক আর মা গৃহীনি। ভোলার লালমোহন উপজেলার লালমোহন ইউনিয়নের ফুলবাগিচা এলাকার মোল্লা বাড়ির নাছিরের ছেলে জাবেদ।

তার মা রানু বিবি বলেন, বড় ছেলে ফিরোজ হোসেন লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গত দুই বছর আগে মারা গেছে। তারা চিকিৎসা ব্যয়ে আমরা প্রায় নি:স্ব হয়ে গেছি। এখন আবার ছোট ছেলে জাবেদের এই অবস্থা। দিন দিন ছেলে শারীরিক অবস্থা খারাপ হচ্ছে। টাকার জন্য একজন ভালো ডাক্তারের কাছে নিয়ে জাবেদের চিকিৎসাও করাতে পারছি না। দার-দেনা করে এলাকায় ডাক্তার দেখালেও তারা বলেছে জাবেদের শরীরের যে অবস্থা তার জন্য উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন।

অসুস্থ্য জাবেদ হোসেন বলেন, আমার শরীরে কি রোগ হয়েছে তা ঠিক মত নির্ণয় করতে পারছি না। পরিবারের অবস্থাও ভালো না। তারাও এখন অসহায়। মা প্রতিদিন আমায় জড়িয়ে ধরে কান্না করে, ভাবেন হয়তো বেশি দিন বাঁচবো না। চিকিৎসা না করাতে পারলে হয়তো সত্যি সত্যিই বেশি দিন বাঁচবো না। আমি বাঁচতে চাই। তাই সমাজের বিত্তবানদের কাছে অনুরোধ করছি; আমার চিকিৎসার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন তা দিয়ে যেন বিত্তবানরা আমার পাশে দাঁড়ান।