বরিশালে নিয়মিত ফ্লাইটের ঘোষনা দিয়েও প্রত্যাহার করল বিমান


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২, ১:৩৩ অপরাহ্ণ /
বরিশালে নিয়মিত ফ্লাইটের ঘোষনা দিয়েও প্রত্যাহার করল বিমান

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল : রাষ্ট্রীয় বিমান বরিশাল সেক্টরের যাত্রীদের সাথে নানামুখি তামাসা করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অথচ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশেই গত বছর ২৬ মার্চ স্বাধিনতার সূবর্ণ জয়ন্তিতে বরিশাল সেক্টরে নিয়মিত জাতীয় পতাকাবাহী বিমান ফ্লাইট চালু করা হয়েছিল। কিন্তু পদ্মা সেতু চালুর ফলে যাত্রী চলাচল হ্রাসের অজুহাতে গত ৫ আগষ্ট থেকে বরিশাল সেক্টরে নিয়মিত ফ্লাইট সপ্তাহে ৩দিনে হ্রাস করা ছাড়াও বিমান বন্দরে যাত্রীদের আসা যাওয়ার গাড়ীও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

অপরদিকে আগামী ২৩ অক্টোবর থেকে বিমান-এর শীতকালীন সময়সূচীতে পুনরায় বরিশাল সেক্টরে সপ্তাহে ৬ দিন ফ্লাইট চলাচলের ঘোষনা দিয়ে পনের দিনের মাথাও তাও বাতিল করা হয়েছে। অথচ এসময়ে বিমান-এর নিজস্ব ওয়েব সাইট সহ বরিশাল সেলস অফিস থেকে শীতকালীল সময়সূচীতে বুধবার বাদে সপ্তাহে ৬টি ফ্লাইট-এর সময়সূচীর কথা বলা হয়েছিল। যাত্রীরা আশান্বিত হয়েছিল রাষ্ট্রীয় বিমানে নিয়মিত ভ্রমনের সুযোগ লাভের আশায়। অনেক যাত্রী আগ্রহী হয়ে বরিশাল সেলস অফিসে যোগাযোগও শুরু করেন বিমান-এ ভ্রমনের লক্ষ্যে।

কিন্তু ১৫ দিন বাদেই সব কিছু ওলট পালট করে দিয়ে শীতকালীন সময়সূচীতেও সপ্তাহে ৩দিন ফ্লাইট পারিচালনের ঘোষনা দিয়েছেন বিমান কতৃপক্ষ। অথচ শীতকালীন সময়সূচীতে সপ্তাহে ৬ দিন ফ্লাইট চালু প্রসঙ্গে বিমান-এর ফ্লাইট সিডিউলিং ও মার্কেটিং বিভাগের ঊর্ধ্বতন কৃতপক্ষ ইনকিলাবকে জানিয়েছিলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি বিবেচনায় বরিশাল সেক্টরে ফ্লাইট বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই নতুন সিডিউল প্রনয়ন করেছি’।

কিন্তু এক সপ্তাহের মধ্যেই সব ওলট পালট হয়ে গেছে। অথচ যাত্রী সংকটের যে কথা বলে গত ৫ আগষ্ট থেকে বরিশাল সেক্টরের নিয়মিত ফ্লাইট সপ্তাহে ৩ দিনে হ্রাস করা হয়েছিল, সে তুলনায় এখন বরিশাল সেক্টরে যাত্রী চলাচলও অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে বিমান কতৃপক্ষের ভাষায় তা ‘সন্তোষজনক নয়’। অথচ প্রতিদিন বিকেলে বরিশাল সেক্টরে একটি বেসরকারী এয়ারলাইন্স সন্তোষজনক যাত্রী নিয়েই নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

বিমান-এর বরিশাল সেলস অফিসও এখন আর কিছু বলতে পারছে না। তবে পদ্মা সেতুর অজুহাতে রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থাটি দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একমাত্র আকাশ পথ নিয়ে গত কয়েকমাস ধরে যে ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে সন্তুষ্ট নয় এ অঞ্চলের সাধারন মানুষ। অথচ সারা দেশের মধ্যে দুরুত্ব ভেদে বরিশাল সেক্টরেই যাত্রী ভাড়া সবচেয়ে বেশী।

বেসরকারী ইউএস বাংলা এয়ার প্রতিদিন বিকেলে প্রায় ৮০ভাগ সিডিউল রক্ষা করে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করলেও বিমান কেন সপ্তাহে ৩দিন চলছে, সে ব্যাপারে কিছু বলতে পারছে না বরিশাল সেলস অফিস। তবে ইউএস বাংলা এয়র কতৃপক্ষ জানিয়েছেন, গত জুলাই থেকে যে হারে যাত্রী হ্রাস পেয়েছিল, তার অনেকটাই পরিবর্তন হয়েছে।

বেসরকারী এ এয়ারলাইন্সটি এখন প্রতিদিন ৬৫Ñ৯০ ভাগ লোড নিয়ে বরিশাল-ঢাকা আকাশ পথে চলাচল করছে বলেও জানিয়েছে এয়ারলাইন্সটির বরিশাল অফিস কতৃপক্ষ। অপরদিকে বিমান বন্দর সহ একাধীক সূত্রে জানা গেছে, বিমান বাংলাদেশ এয়ালাইন্স বরিশাল সেক্টরে সপ্তাহে যে ৩দিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে, তাতেও যাত্রী ভ্রমনের হার ৬৫Ñথেকে ৮০ শতাংশের মত।