পিরোজপুরে মাদক মামলায় একজনের ১২ বছর কারাদণ্ড


Barisal Crime Trace -GF প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২, ৩:৪৮ অপরাহ্ণ /
পিরোজপুরে মাদক মামলায় একজনের ১২ বছর কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মাদক মামলায় মো. কালাম (৩৬) নামের একজনকে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে আরেক ধারায় দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও দুই হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

 

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এস এম নূরুল ইসলাম আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। এ মামলার অন্য সাত আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত মো. কালাম মঠবাড়িয়া উপজেলার দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের মৃত মো. রত্তন আলীর ছেলে।

 

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন ঝিনাইদহের মহেশপুর গ্রামের লাইজু বেগম, বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ গ্রামের নাজমা, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরাজ আকন, মানিক মোল্লা, ওবায়দুল, রাসেল হাওলাদার ও রিয়াজ তালুকদার।

 

আদালতের সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) জহুরুল ইসলাম রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৮ মে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বড় মাছুয়া স্টিমারঘাটে অভিযান পরিচালনা করে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ। এ সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা পি এস টার্ন স্টিমার থেকে আসেন মো. কালাম। তাকে ঘাটে পুলিশ প্রশ্ন করলে তিনি দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ ধাওয়া করে পার্শ্ববর্তী মাঠ থেকে তাকে আটক করে।

আটকের পর তল্লাশি করে তার কাছ থেকে ৮০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও পাঁচ কেজি গাজা উদ্ধার করা হয়। এরপর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বাকি সাত আসামিকে আটক করে।

 

ওইদিন পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুব্রত বিশ্বাস বাদী হয়ে স্থানীয় থানায় একটি মামলা করেন। এ ঘটনায় ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট মঠবাড়িয়া থানার এসআই ফারুক হোসেন আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আদালত আজ এ রায় ঘোষণা করেন।