ঝালকাঠিতে একজনের সহিংসতার অভিযোগ, অপরজনের ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৪, ২০২২, ১২:২৩ অপরাহ্ণ /
ঝালকাঠিতে একজনের সহিংসতার অভিযোগ, অপরজনের ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন

স্টাফ রিপোর্টার, ঝালকাঠি : ঝালকাঠি জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এক নারী সদস্য পদপ্রার্থীর বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, সহিংসতা, ভয়ভীতি প্রদর্শন ও প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুটি ভোট কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন করেছেন অপর প্রার্থী।

অভিযোগ ওঠা নারী প্রার্থীর নাম জাহানারা হক। তিনি কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. এমদাদুল হক মনিরের মা। আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি ভোটারদের কাছ থেকে প্রকাশ্যে ভোট নেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদনকারী প্রার্থীর নাম নাছরীন সুলতানা মুন্নি। তিনি জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে প্রধান নির্বাচন কমিশনার, বিভাগীয় কমিশনার, ডিআইজি, জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে জাহানারা হকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন। একইসঙ্গে নিয়ম অনুসারে ভোট গ্রহণের জন্য রাজাপুর ও কাঁঠালিয়ার ভোটকেন্দ্রে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন করেন।

অভিযোগে নাছরীন সুলতানা মুন্নি উল্লেখ করেন, আগামী ১৭ অক্টোবর ঝালকাঠি জেলা পরিষদ নির্বাচন তিনি মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে ফুটবল প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সরকার সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের আদেশ দিলেও স্থানীয় একটি স্বার্থান্বেষী চক্র জেলা আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরে ঢুকে সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে নির্বাচন ব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে।

চিহ্নিত মহলটি বিভিন্নভাবে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ খুন-জখমের হুমকি ও ভোট কেন্দ্রে প্রকাশ্যে ভোট গ্রহণের প্রপাগন্ডা ছড়াচ্ছে। এ অবস্থায় ভোটকেন্দ্রে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া উপজেলার ভোট কেন্দ্রে সার্বক্ষণিক দুজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের দাবী জানাচ্ছি।

নাছরীন সুলতানা মুন্নীর অভিযোগ, মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী জাহানারা হকের ছেলে কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. এমদাদুল হক মনির। যে কারণে তিনি (জাহানারা) এ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদের ক্ষমতার অপব্যবহার ও প্রভাব বিস্তার করে প্রতিনিয়ত আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন। স্থানীয় ভোটদের কাছে তিনি একবারের জন্যও ভোট চাইতে যাননি। মনির তার মা ব্যতীত অন্য কাউকে যেন কোনো ভোটার ভোট না দেন, সে ঘোষণা দিচ্ছেন। নির্বাচনর বিধি নষ্ট হতে পারে, সে ভাবনা থেকে তিনি ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন করেছেন।

অভিযোগের ব্যাপারে জাহানারা হকের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে তার ছেলে কাঁঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মনির বলেন, আমার মা জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী। তার ব্যাপারে অভিযোগ সঠিক নয়। এ ছাড়া তার পক্ষে প্রচার ও প্রভাব বিস্তারের প্রশ্নই আসে না। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই বরং এ কাজ করছেন। হারার ভয় ও ভোটারদের কাছ থেকে সাড়া না পেয়ে মুন্নী অপকৌশল করছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।