কুয়াকাটায় বোট মালিকের মাথা ফাটালেন শ্রমিক লীগ নেতার ভাই


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৫, ২০২২, ৪:১৯ অপরাহ্ণ /
কুয়াকাটায় বোট মালিকের মাথা ফাটালেন শ্রমিক লীগ নেতার ভাই

স্টাফ রিপোর্টার, কুয়াকাটা : কুয়াকাটা পৌর শ্রমিকলীগ সভাপতির ভাইয়ের হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন একজন পর্যটন ব্যবসায়ী। তাকে পিটিয়ে মাথা ফাটানোর পর থানায় অভিযোগ করায় হামলাকারী ও তার পরিবারের তোপের মুখে পড়ে ভুক্তভোগী গুম-খুনের শঙ্কায় আছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।হাসপাতালের বিছানায় মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে শনিবার সকালে সাংবাদিকদের সামনে এসব অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ইলিয়াস।

টুরিস্ট বোট মালিক মো. ইলিয়াস আকন কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে শনিবার সকালে তার লিখিত বক্তব্যে জানান, গত বুধবার দুপুরের দিকে কুয়াকাটার খাপড়াভাঙ্গা নদীতে তার ফাইবার বোটটি অপর একটি ফাইবার বোটের পাশে নোঙর করে রাখেন। ওই ফাইবার বোটের মালিক মো. আবুল হোসেন কাজী এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দ করলে ইলিয়াস প্রতিবাদ জানান।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে হামলে পড়েন ইলিয়াসের ওপর। এ ঘটনায় রক্তাক্ত জখম হলে আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। বিষয়টি অভিযোগ আকারে মহিপুর থানা পুলিশকে জানালে আরও ক্ষেপে যান আবুল কাজী। এ অবস্থায় অভিযোগ প্রত্যাহারে তাকে চাপ দেওয়া হচ্ছে। অন্যথায় তাকে গুম খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে ইলিয়াসের অভিযোগ।

হামলার সময় প্রত্যক্ষদর্শী ও টুরিস্ট বোট মালিক সমিতির সভাপতি মো. জনি আলমগীর জানান, আবুল কাজী টুরিস্ট বোট মালিক সমিতির একজন দায়িত্বশীল হয়েও তিনি সংগঠনের নিয়মনীতির তোয়াক্কা করেন না। ঘটনার দিন অত্যন্ত বেপরোয়া ও নির্দয়ভাবে ইলিয়াসের ওপর হামলা চালিয়েছে। তার বড় ভাই কুয়াকাটা পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্বাস কাজীর প্রভাবে পরিবারটি নানা অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আবুল কাজী বলেন, ভুল বোঝাবুঝির এক পর্যায় ইলিয়াসের আঘাত প্রতিহত করতে গিয়ে মুখমণ্ডলে সামান্য আঘাত পেতে পারে। মহিপুর থানার বোসি খন্দকার মোহাম্মদ আবুল খায়ের জানিয়েছেন, অভিযোগ তদন্তে প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা রয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।