‘আগামীতে বরিশালে আইটি ইন্ডাস্ট্রি হবে’


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৫, ২০২২, ৭:৩৫ অপরাহ্ণ /
‘আগামীতে বরিশালে আইটি ইন্ডাস্ট্রি হবে’

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল : জাতীয় অর্থনীতিতে বরিশালের প্রযুক্তি খাত উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন ইউরোটেল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম জাকির হোসেন। আর্ন্তজাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত এই প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার মনে করেন আগামীতে বরিশালে আইটি ইন্ডাস্ট্রি হবে।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) সকালে বরেণ্য সাংবাদিক তুষার আবদুল্লাহ’র সঞ্চালনায় বরিশাল শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল এখন-এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত মুক্ত আলোচনায় এসব কথা বলেন।

এসএম জাকির হোসেন আরো বলেন, বরিশালে তথ্য প্রযুক্তির যে বিস্তার ঘটেছে তা বর্তমান সরকারের সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের হাত ধরেই ডিজিটাল বাংলাদেশের সূচনা হয়েছে। বরিশাল হচ্ছে প্রান্তিক—আমাদের এই অঞ্চলে এমন কোন এলাকা নেই যেখানে নদী কিংবা খাল নেই। সজীব ওয়াজেদ জয় এই অঞ্চলের প্রতিটি ইউনিয়নে ইনফো সরকার ফেইস-২ ফেইস-৩ সংযুক্ত করেছেন। তার কল্যানেই বরিশালের যেকোন গ্রামেই তথ্য প্রযুক্তির সংযোগ দিতে পারছি। সরকার বরিশালে দুটি আইটি ট্রেনিং ইন্সটিটিউট উদ্বোধন করেছে। যার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। আমি মনে করি আইটি ট্রেনিং ইন্সটিটিউট চালু হলে বরিশালে আইটি ইন্ডাস্ট্রি হবে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিতে এই অঞ্চলের তথ্য প্রযুক্তি খাত উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারবে।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু হওয়ার পরে আমাদের এখানে দেশ এবং দেশের বাইরের উদ্যোক্তারা আসছেন। তারা চাইছেন কাজের সুন্দর একটি পরিবেশ এবং জায়গা। বরিশালের বিসিকে কিন্তু এখন জায়গা নেই। এমন আরো দুটি বিসিক হলেও কিন্তু বরিশালের ব্যবসায়ীদের জায়গা দিতে পারবেন না। অর্থাৎ ব্যবসায়ীদের কাছে জায়গার চাহিদা অনেক কিন্তু স্থান করে দেওয়ার মত জায়গা বরিশালে নেই। বরিশাল থেকে চট্টগ্রাম, মোংলা, পায়রা বন্দরে খুব অল্প সময়ে যেতে পারছি। এমনকি প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের কলকাতা যদি যেতে হয় তাহলেও বরিশালের ওপর দিয়ে নদী পথে যেতে হচ্ছে। অর্থাৎ বরিশাল থেকেই সম্ভব সারা দেশে অল্প সময়ে যাতায়াত করা।

এসএম জাকির হোসেন বলেন, এর আগে দক্ষিণাঞ্চলে উৎপাদিত ফসল গাড়িতেই পঁচে যেত। কিন্তু পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর এখন সারা বাংলাদেশে দিনে দিনে পন্য পৌঁছে যাচ্ছে। তার পাশাপাশি এই অঞ্চলে উৎপাদিত খাদ্য শস্য সংরক্ষণের জন্য একটি হিমাগার দরকার। ইলিশ মাছের উৎপাদন বাড়ছে। এই মাছ সংরক্ষণ করার জন্যও একটি সংরক্ষণাগার দরকার।

তিনি বলেন, আমাদের চেম্বার অব কামার্সের পরিচালক সেরনিয়াবাত মঈন আব্দুল্লাহ ইতোমধ্যে বৈঠক করেছেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামী নভেম্বরে বরিশালে উদ্যোক্তা মেলার আয়োজন করার। বরিশালের সিটি মেয়র এই মেলায় সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন। আমাদের এই মেলাটি হবে দক্ষিণাঞ্চলে যারা বিনিয়োগ করতে চান তাদের সম্মিলন।

তিনি আরো বলেন, বরিশালে দুটি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট। ওখান থেকে যারা পাস করছেন তার অধিকাংশ শিক্ষার্থী ইউরোটেল বিডি অনলাইন লিমিটেডে ইনটার্নশীপ করেন। আমি মনে করি বাংলাদেশে যেভাবে প্রতিষ্ঠান হচ্ছে তাতে প্রত্যেক কোম্পানীতে একজন তথ্য প্রযুক্তি কর্মকর্তা থাকছেন। এজন্য অনেক কর্মসংস্থান বেড়েছে। এমনকি বরিশালে যত কোম্পানী রয়েছে সেখানে বিগত ৩/৪ বছরে এই চর্চা শুরু হয়েছে একজন তথ্য প্রযুক্তি কর্মকর্তা নিয়োগ করার। বিগত ১৬ বছর ধরে ইউরোটেল বরিশালে তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে। কুয়াকাটাতে পর্যটকদের ভিড়ে থাকায় জায়গা পাওয়া যায় না। আমি মনে করি কুয়াকাটাতে বিনিয়োগের একটি বড় সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ দেওয়া উচিত। যা থেকে অনেকেই বঞ্চিত হচ্ছেন।

মুক্ত আলোচনায় আরো উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু, বরিশাল উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি বিলকিস আহম্মেদ লিলি, সুরভী গ্রুপ অব কোম্পানীর পরিচালক রিয়াজ উল কবির, এমইপি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. জাহাঙ্গীর আলম চাকলাদার, অপসোনিন ফার্মা লিমিটেডের প্রকল্প সমন্বয়কারী রফিকুর রহমান, ধানসিঁড়ি রিয়েলস্টেট লিমিটেডের পরিচালক হাফিজুর রহমান হীরা, অমৃত কনজুমার ফুড প্রডাক্টস লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালন ভানু লাল দে, কাজী ডেভেলপার্স বরিশাল লিমিটেডের পরিচালক কাজী মাহফুজুর রহমান, এম খান লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহফুজ খান।