ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম, এবার বাড়িছাড়া করার হুমকি


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২১, ২০২২, ৬:০৭ অপরাহ্ণ /
ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম, এবার বাড়িছাড়া করার হুমকি

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল : ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম করেছে দুইভাই। এই ঘটনায় মামলা দায়ের হলে বাড়িছাড়া করার হুমকি পাওয়া গেছে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নে তুলাতলা গ্রামে। ধর্ষণ চেষ্টা ও কুপিয়ে জখমের ঘটনায় পিরোজপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী আবু সালেহ মোঃ ওমান। তিনি আদালতের বরাত দিয়ে জানান, মামলা আমলে নিয়ে অপরাধ তদন্ত বিভাগকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। জানা গেছে, তুলাতলা গ্রামের মশিউর রহমানের সাথে প্রতিবেশী আবুল কালাম ও জসিমের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

এ নিয়ে বেশ কয়েকবার বৈঠক হলেও সমাধান হয়নি। ওদিকে ৯ অক্টোবর মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে মামলা দিয়ে পুলিশ নিয়ে এসে রাতে ধরিয়ে নিয়ে যায়। তখন তার স্ত্রী ঘরে একা ছিল। স্বামীর জন্য অপেক্ষা করে ভোর ৬টার দিকে ঘরের সামনের পুকুরে হাতমুখ ধুতে গিয়ে ফিরে আসার সময়ে আবুল কালাম ও জসিম উদ্দিন ওই গৃহবধূর পথরোধ করেন। তারা ওই গৃহবধূকে বিবস্ত্র করার চেষ্টা করেন এবং যৌণ নির্যাতন চালান।

এসময়ে ধর্ষণে বাধা দিলে হামলাকারীদের সাথে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম করে। এছাড়া উপুর্যপরি মারধর ও তলপেটে আঘাত করলে নিম্নাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ হতে শুরু করে। ওই নারীকে নির্যাতনের সময়ে তিনি ডাক চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা দৌড়ে এলে হামলাকারী কালাম ও জসিম পালিয়ে যায়।

এরপরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করালে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে মামলা দায়ের করায় নতুন করে হত্যার হুমকি দিচ্ছে আবুল কালাম ও জসিম বলে জানিয়েছেন ওই গৃহবধূ। তিনি বলেন, আমি পুরো পরিবারসহ আতঙ্কে আছি।

এরআগে তারা মিথ্যা মামলা দিয়ে আমার স্বামী-দেবরকে জেল খাটিয়েছে। এরপরে সুযোগ পেয়ে আমাকে ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। এই ঘটনায় মামলা দায়ের করায় তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে। প্রকাশ্যে আমাদের খুনের হুমকি দিচ্ছে। তিনি বলেন, আসামীরা স্থানীয়ভাবে খুবই ক্ষমতাবান। তাদের কথায় পুলিশ ওঠবস করে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আমরা নির্যাতনের শিকার।