চাল মেলেনি বেতাগীর জেলেদের


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২১, ২০২২, ৬:৩৯ অপরাহ্ণ /
চাল মেলেনি বেতাগীর জেলেদের

বেতাগী প্রতিনিধি : মা ইলিশ রক্ষা এবং প্রজনন মৌসুম নির্বিঘ্ন করতে ইলিশ ধরায় ২২ দিনের সরকারি নিষেধাজ্ঞা চলছে। এ সময় জেলেদের বিশেষ ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় উপকূলীয় জনপদ বরগুনার বেতাগী পৌরসভাসহ উপজেলার তিন হাজার ১৮৫ জন জেলেকে ৭৯.৬২ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয় সরকার। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার ১৪ দিন হলেও চাল পাননি হতদরিদ্র জেলেরা। এসব জেলেরা পরিবার-পরিজন নিয়ে অতিকষ্টে হতাশায় দিন কাটাচ্ছেন।

জানা গেছে, গত ৭ অক্টোবর মধ্যরাত থেকে মা ইলিশ শিকার, পরিবহন ও বিপণন নিষিদ্ধ করেছে সরকার। নিষেধাজ্ঞা চলবে ২৮ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত। এই ২২ দিনের জন্য ২৫ কেজি করে তিন হাজার ১৮৫ জন জেলের জন্য ৭৯.৬২ মেট্রিক টন বিশেষ ভিজিএফ চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

অভিযোগ রয়েছে, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার গাফিলতির কারণে ১৪ দিনেও জেলেদের মধ্যে চাল বিতরণ করা সম্ভব হয়নি। বেতাগী সদর ইউনিয়নের ঝোপখালী গ্রামের জেলে মোশারেফ হোসেন বলেন, অবরোধের কারণে গত ১৪ দিন ধরে নদীতে নামতে পারছি না। ঘরে খাবার নেই।

পরিবার-পরিজন নিয়ে ধার-দেনা করে অনেক কষ্টে আছি। দ্রুত বরাদ্দ চাল বিতরণের দাবি জানান তিনি। ওই একই গ্রামের হাসিনা বেগম নামের অন্য এক জেলে বলেন, মোগো কষ্ট দ্যাহার কেউ নাই। হারা বচ্চর গাঙে মাছ পাওয়া যায় না। অ্যাহন দিছে অবরোধ। ঘরে চাউল নাই।

হোসনাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মো. খলিলুর রহমান খান বলেন, জেলেদের জন্য বরাদ্দ চাল বিতরণের অনুমতি পাইনি এখনো। বেতাগী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল গাফ্ফার বলেন, সরকার চাল বরাদ্দ দিয়েছে। দু’-তিন দিনের মধ্যে বিতরণ কার্যক্রম শুরু করব। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুহৃদ সালেহীন বলেন, অতি শিগগিরই জেলেদের চাল বিতরণের নির্দেশ দিয়েছি।