বরগুনাযর ৩৯ হাজার কৃষক পাচ্ছে সার ও বীজ


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১:২১ অপরাহ্ণ /
বরগুনাযর ৩৯ হাজার কৃষক পাচ্ছে সার ও বীজ

স্টাফ রিপোর্টার, বরগুনা : বরগুনার জেলার ৬ উপজেলায় চলতি মৌসুমে ডাল ও তেল জাতীয় ফসল উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ৩৯ হাজার ১০০ কৃষককে বিনামূল্যে সার-বীজ প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। এসব ফসলের মধ্যে ভুট্টা, সরিষা, সূর্যমুখী, বোরো ধান, বোরো হাইব্রিড, মুগডাল ও খেসারি ডাল রয়েছে। প্রত্যেক কৃষক এক বিঘা জমির অনুকূলে একটি ফসলেরে জন্য এসব বীজ-সার পাচ্ছেন। ইতোমধ্যে এসব প্রণোদনা বিতরণ শুরু হয়েছে।

বরগুনা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এসব ফসলে পরিমাণমত বীজের পাশাপাশি প্রত্যেক কৃষককে ডিএপি সার ১০ কেজি ও এমওপি সার ১০ কেজি করে দেয়ার কথা রয়েছেন। তবে বরাদ্দের উপরে কম বেশি হতে পারে।

জেলার মোট ৩৯ হাজার ১০০ কৃষকের মধ্যে সদর উপজেলায় প্রণোদনা পাচ্ছে ৭ হাজার ৬২০ জন। এর মধ্যে ভুট্টা ৫০, সরিষা ১৯০, সূর্যমুখী ২০০০, মুঘ ডাল ৫০০০, খেসারি ডাল ৩৮০। আমতলী উপজেলায় ৫ হাজার ৮১৫ জন কৃষক বীজ-সার প্রণোদনা পাচ্ছে এর মধ্যে ভুট্টা ৫০, সরিষা ১৩৫, সূর্যমুখী ১১০০, মুগডাল ৪ হাজার ২০০ ও খেসারি ডাল ৩৩০ জন। তালতলী উপজেলায় ৪ হাজার ৪০ জনের মধ্যে ভুট্টা ৩০, সরিষা ৬০ , সূর্যমুখী ১৫০০, মুগডাল ২ হাজার ৩০০ ও খেসারি ডাল ১৫০ জন কৃষক। বেতাগী উপজেলায় ৪ হাজার ৬৫ জনের মধ্যে ভুট্টা ২৫ , সরিষা ৬০ , সূর্যমুখী ৭০০, মুগডাল ৩ হাজার ও খেসারি ডাল ২৮০ জন। বামনা উপজেলায় ২ হাজার ২১৫ জন কৃষক বীজ-সার প্রণোদনা পাচ্ছে এর মধ্যে ভুট্টা ২৫ , সরিষা ৩০ , সূর্যমুখী ৫০০, মুগডাল ১ হাজার ৫০০, খেসারি ১৬০ জন কৃষক।

পাথরঘাটা উপজেলার বীজ-সার প্রণোদনা পাচ্ছে ৫ হাজার ৩৪৫ জন কৃষকের মধ্যে ভুট্টা ৭০ , সরিষা ৭৫, সূর্যমুখী ১০০০, মুগডাল ৪০০০ হাজার ও খেসারি ডাল ২০০ জন কৃষক রয়েছে। এছাড়াও জেলায় ৫০০০ হাজার কৃষকের বোরো ধান ও ৬০০০ হাজার কৃষকে বোরো হাইব্রিড জাতের বীজ ধান দেয়ার কথা রয়েছেন। সদর উপজেলা ঢলুয়া ইউনিয়নের পোটকাখালী গ্রামের কৃষক মোজাম্মেল জানান, সরকারের বীজ ও সার পেয়ে আবাদের কাজ শুরু করবেন। তাদের জমি তৈরি কাজ চলমান রয়েছে।

পাথরঘাটা উপজেলার হরিণবাড়িয়া গ্রামের মোর্শেদা আক্তার জানান, এবার তিন বিঘা জমিতে মুখ ডাল আবাদ করবেন। কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে আমাদের উন্নত মানের বীজ দিলে ভালো ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান তিনি। বরগুনা সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, প্রায় ৮ হাজার কৃষকের মধ্যে সরকারের বীজ ও সার বিতরণ করা হচ্ছে। চাষিরা এরই মধ্যে জমি তৈরির কাজ শুরু করেছেন। আশা করছি, সব ফলনই ভালো হবে।

বরগুনা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আবু সৈয়দ মোঃ জোবায়দুল আলম জানান, তেল ও ডাল জাতীয় ফসলের ঘাটতি কাটিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধি করার জন্যই কৃষকের মাঝে এসব বীজ-সার বিতরণ করছে সরকার। সরকারিভাবে প্রণোদনা প্রাপ্তির মাধ্যমে কৃষকের উৎসাহ বাড়বে। আগামী ৭ দিনের মধ্যে এসব প্রণোদনা বিতরণ কাজ সম্পন্ন হবে বলে জানান তিনি।