ওমরপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলামের উঠান বৈঠকে গণজোয়ার 


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৩, ২০২২, ৮:০৭ অপরাহ্ণ /
ওমরপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলামের উঠান বৈঠকে গণজোয়ার 

শাহাবুদ্দিন সিকদার, চরফ্যাশন : ভোলার চরফ্যাশনের ওমরপুর ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী একেএম সিরাজুল ইসলামের আনারস মার্কার নির্বাচনী প্রচারণা ও উঠান বৈঠকে বিশাল জনসভায় জনসমুদ্রে পরিনত হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার ৬নং ওয়ার্ড উত্তর-পূর্ব ওমরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বিকাল ৪ টায়, সন্ধ্যা ৭ টায় ওমরপুর ৭নং ওয়ার্ডের পাটওয়ারি বাড়ির সামনে স্কুল মাঠে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয। উঠান বৈঠকে হাজার হাজার কর্মী ভোটার, নারী পুরুষের উপস্থিতিতে বিশাল জনসভায় পরিনত হয়েছে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন কর্মী ভোটাররা।

ওই দিন ৫,৩,৪,৭,৯,৮২,১ ও ৬ নং ওয়ার্ড, মুখারবান্দা বাজার, চৌমুহনী বাজার,কালাপানিয়া বাজার, নাঈবের পুল, জনতা বাজার, কর্তারহাট এলাকায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা ও সাধারণ ভোটারদের কাছে ভোট ভিক্ষা চান। উঠান বৈঠকে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটার সহ নারী পুরুষরা উপস্থিত ছিলেন।

উঠান বৈঠকটি জনসভায় পরিণত হয়। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন ওমরপুর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলুল করিম মিয়া, উপজেলা শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি হাসান উদ্দিন কাজল,ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মামুন, সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন সহ আওয়ামী লীগ এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ স্থানীয় মুরব্বি গন।

এসময় সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমি ১২ বছর জনগণের সেবক ছিলাম, আগামী দিনগুলোতে ও তাদের সেবক হিসেবে থাকতে চাই।
বিগত দিনের সেবার মূল্যায়ন হিসেবে এবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে তিনি আশাবাদী। ভোটারদের কাছে প্রত্যাশা রেখে বলেন, আমি ওমরপুর বাসীর ভোট ও দোয়া চাই। ওমর বাসীর পাশে ছিলাম, আগামী দিনগুলোতে পাশে থাকতে চাই।

আমি চেয়ারম্যান থাকাকালীন কোন জনগণকে কোন স্বাক্ষর বা কাগজের জন্য বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়নি। আমি বিগত সময়ে নির্বাচিত হয়ে ওমরপুর বাসীকে টেক্স মুক্ত করেছি।আবারও হতে পারলে ওমরপুর বাসিকে টেক্স মুক্ত করব ইনশাআল্লাহ । আমি চেয়ারম্যান থাকাকালীন কোন অফিস-আদালত বা থানায় কারো দালালি করে নি।

কোনো নিরীহ ব্যক্তির কাছ থেকে উৎকোচ গ্রহণ করিনি। নির্বাচিত হলে ওমরপুর ইউনিয়নকে একটি সুন্দর ও আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো। দীর্ঘ বছর পর নির্বাচন হওয়ায় সাধারণ ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে। দীর্ঘ ১২ বছর জনগণের সেবা করেছি।এখন নির্বাচনের মাধ্যমে সঠিক মূল্যায়ন করবে সাধারণ ভোটাররা। এটাই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

ওমরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান সোহাগ ভূঁইয়ার হাটের জনসভায় উপস্থিত বক্তৃতাকালে তিনি বলেন, সারাজীবন আওয়ামী লীগের ব্যানারে থেকে জনগণের খেদমত করেছি। একে এম সিরাজুল ইসলাম আনারস মার্কা নিয়ে আজ আপনাদের পাশে দাঁড়াতে সুযোগ পেয়েছে।

বিপুল ভোটের ব্যবধানে তাকে আনারস মার্কায় নির্বাচিত করতে ওমরপুর আওয়ামী লীগের সকল নেতা কর্মী আজ ঐক্যবদ্ধ। এবারের নির্বাচন প্রভাবমুক্ত অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। সাধারণ ভোটাররা আনারসের বিজয় নিশ্চিত ভেবে আজ নৌকা মার্কাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তাই আজ আনারসের গণজোয়ার শুরু হয়েছে। আগামী ২৮ তারিখে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয় নিশ্চিত করবে সাধারণ জনগণ। এটাই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।