৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে নলছিটিতে মানববন্ধন


Barisal Crime Trace -GF প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৬, ২০২২, ৭:০৯ অপরাহ্ণ /
৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে নলছিটিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা পোস্টের নিজস্ব প্রতিবেদক সৈয়দ মেহেদী হাসানসহ ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন। এদিকে এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছে বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি।

 

শনিবার সকালে নলছিটি উপজেলা প্রেসক্লাবের সামনে এই কর্মসূচি পালিত হয়। কর্মসূচি থেকে হুশিয়ারি দিয়ে বলা হয়, চাকুরিচ্যুত সার্ভেয়ার মোতালেব হোসেনের দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে কালো আইন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলার আসামী হয়েছেন ঢাকা পোস্টের নিজস্ব প্রতিবেদকসহ ৬ জন।

 

যেখানে দুর্নীতি দমন কমিশনে ভূক্তভোগী পরিবার অভিযোগ দিয়েছেন, সেই অভিযোগের ভিত্তিতে সংবাদ প্রকাশ করেও মামলার আসামী হতে হলো। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, দুর্নীতিবাজদের দৌরত্মে সাংবাদিকতা কুণ্ঠিত হয়ে পড়েছে। বরংছ হওয়ার কথা ছিল মোতালেবের দুর্নীতির বিষয় খতিয়ে দেখা। তা না করে দুর্নীতির বিরুদ্ধে যারা কথা বলেছেন তাদের কোনঠাসা করা হচ্ছে।

 

বক্তারা অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহার এবং দুর্নীতিবাজ-ভূমিদস্যু সার্ভেয়ার মোতালেব হোসেনের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে।

 

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন নলছিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি এনায়েত করিম, সহ-সভাপতি ইউসুফ তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিলন কান্তি দাস, রিপোটার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন মনু, প্রেসক্বাবের নির্বাহী সদস্য কেএম সবুজ, সদস্য মো. খলিলুর রহমান মৃধা, সাংবাদিক আমির হোসেন, তপন দাস, খান হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান রিপন, মো. জসিম হাওলাদার, শরিফুল ইসলাম পলাশ, বশির হাওলাদার, সোহেল রানা, তপু পোদ্দার, মো. আমিন হোসেন, রাসেল মৃধা, শাকিল খলিফা, নাইম মল্লিক। ওদিকে ঢাকা পোস্ট ডটকমের নিজস্ব প্রতিবেদক সৈয়দ মেহেদী হাসানসহ ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হয়রানিমূলক মামলা দায়েরের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি (বিআরইউ)।

 

বিবৃতিতে সভাপতি নজরুল বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক মিথুন সাহাসহ সকল সদস্যবৃন্দ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অনতিবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি। সংগঠনটি মনে করে, দুর্নীতির অভিযোগ থাকা সাবেক সার্ভেয়ার মোতালেব হোসেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ব্যবহার করে সাংবাদিকতার সুষ্ঠ পথ ব্যহত করছেন।

 

উল্লেখ্য, এ্যাংকর সিমেন্ট কোম্পানি থেকে অনিয়মের কারণে চাকরিচ্যুত সার্ভেয়ার মোতালেব হোসেনের জালিয়াতির ঘটনায় জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল ঢাকা পোস্টে গত ১৪ নভেম্বর ‘সাবেক সার্ভেয়ার শত কোটি টাকার মালিক, দুদকে অভিযোগ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

 

পরে আরও বেশ কয়েকটি নিউজ পোর্টাল ও স্থানীয় দৈনিকের প্রিন্ট সংস্করণে সংবাদটি প্রকাশিত হয়। এ ঘটনায় মোতালেবের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগ দেওয়া দম্পতি এবং ছয় সাংবাদিকসহ মোট আটজনের বিরুদ্ধে ২২ নভেম্বর বরিশাল সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয়। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য কোতোয়ালি মডেল থানাকে দায়িত্ব দেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে মোতালেব হোসেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগকারী ইসমাত সায়লা ও তার স্বামী জাহিদ হোসেন সুরুজ মোল্লাকে।

 

এছাড়াও বরিশাল থেকে প্রকাশিত একটি দৈনিকের স্টাফ রিপোর্টার শিকদার মাহাবুব, বিডি ক্রাইম টোয়েন্টিফোরের প্রকাশক ও সম্পাদক রিপন হাওলাদার, বরিশাল ক্রাইম ট্রেস পোর্টালের প্রকাশক ও সম্পাদক অনিক, বিএইচএস টিভি অনলাইন ডটকমের নির্বাহী কর্মকর্তা ওমর ফারুক সাব্বির, ঢাকা পোস্টের নিজস্ব প্রতিবেদক সৈয়দ মেহেদী হাসান ও দৈনিক মতবাদের ফটো সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম খান রাসেলকে আসামি করা হয়েছে।