রোগীরা সসম্মানে চিকিৎসা নেবে, এটা প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার : বরিশালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী


Barisal Crime Trace -GF প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ১৯, ২০২৩, ৩:২৩ অপরাহ্ণ /
রোগীরা সসম্মানে চিকিৎসা নেবে, এটা প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার : বরিশালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৃহস্পতিবার সকালে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্ধিত আড়াইশ’ শয্যা ভবনে নতুন স্থানান্তরিত মেডিসিন ওয়ার্ড এবং পুরনো ভবনে বিভিন্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসার সার্বিক চিত্র দেখে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

 

 

এ সময় স্বাস্থ্য মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতাল ঘুরে যে চিত্র দেখলাম সেটা খুব ভালো মনে হলো না। কারণ অনেক বেশী রোগী। ফ্লোরে পা ফেলার জায়গা নেই। নতুন বর্ধিত ভবনে মেডিসিন ওয়ার্ড স্থানান্তরের পরও ওই ওয়ার্ডে করিডোর ও বারান্দায় রোগী। পুরাতন ভবনের ফ্লোরেও অনেক রোগী। তারা যেভাবে চিকিৎসা নিচ্ছে সেটা সরকারের কাঙ্খিত নয়।

 

 

 

তিনি বলেন, সরকার চায় দেশের প্রত্যেক রোগী বেডে থেকে সসম্মানে চিকিৎসা নেবে। এটা প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার।

 

 

মন্ত্রী বলেন, শের-ই বাংলা মেডিকেলের ভবন ৫৫ থেকে ৬০ বছরের পুরনো। এখানে নতুন অবকাঠামো হওয়া প্রয়োজন। বরিশাল সহ ৮ বিভাগীয় শহরের প্রধান হাসপাতালগুলোতে এক হাজার করে শয্যা বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। কিন্তু এতেও সংকুলান হবে না বলে আশংকা মন্ত্রীর।

 

 

এর আগে মন্ত্রী বরিশালে নির্মাণাধীন মা ও শিশু হাসপাতাল এবং ক্যান্সার হাসপাতালের কাজ পরিদর্শন করেন।

 

 

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, মা ও শিশু হাসপাতালের কাজ সম্পন্ন করে শিঘ্রই রোগীদের জন্য খুলে দেয়া হবে। ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণের সার্বিক অগ্রগতি সন্তোষজনক নয় বলে এর গতি বাড়াতে গণপূর্ত বিভাগকে নির্দেশ দেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী। এই হাসপাতালটি নির্মান হলে বরিশালের কান্সার, কিডনী ও হৃদরোগীদের আর ঢাকা বিদেশে যেতে হবেনা বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

 

 

পরিদর্শনকালে বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ, স্বাস্থ্য মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. সাইদুর রহমান ও মো. নাজমুল হক খান, স্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বশীর আহমেদ, বিভাগীয় কমিশনার মো. আমিন-উল আহসান, জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এবং হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচএম সাইফুল ইসলামসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

পরে মন্ত্রী মেডিকেল কলেজের অডিটরিয়ামে বরিশাল বিভাগের সর্বস্থরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় সভায় হাসপাতালের বিভিন্ন অভাব-অনটন নিয়ে আলোচনা হয়।