ভোলা নর্থ-২ গ্যাস কূপ থেকে দৈনিক ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস তোলা যাবে


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ১২:২০ অপরাহ্ণ /
ভোলা নর্থ-২ গ্যাস কূপ থেকে দৈনিক ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস তোলা যাবে

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলা নর্থ-২ অনুসন্ধান কূপে গ্যাসের সন্ধান পাওয়া গেছে। এখান থেকে ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন করা যাবে। সোমবার সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তবে ভোলার সঙ্গে বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডের মধ্যে পাইপলাইন না থাকায় এই গ্যাস এখনই জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা যাবে না। দৈনিক চাহিদা ৩৫০ কোটি ঘনফুট। দেশীয় ও আমাদনি করা গ্যাস দিয়ে ২৭০ থেকে ২৮০ কোটি ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা সম্ভব হয়।

এরমধ্যে ১০০ কোটি ঘনফুট এলএনজি আমদানি করতে হয়। বাকিটা দেশীয় ক্ষেত্রের গ্যাস। তবে ডলার সংকটের কারণে আমদানি করা এলএনজির পরিমাণ নেমে এসেছে দৈনিক ৪০ কোটি ঘনফুটে। এতে গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও শিল্প-কারখানায় সরবরাহ কমে গেছে। এই পরিস্থিতিতে প্রতিদিন ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস পাওয়ার খবর জ্বালনি বিভাগকে স্বস্তি দিয়েছে।

বাপেক্সের মালিকানাধীন ভোলা নর্থ-২ কূপ খনন করছে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় কোম্পানি গ্যাজপ্রম। গত ডিসেম্বরে এখানে খনন কাজ শুরু হয়। গত বছরের ৫ ডিসেম্বর ভোলা নর্থ-২ এর কূপ খনন কার্যক্রম শুরু হয়ে ৩ হাজার ৪২৮ মিটার গভীরতায় সফলভাবে খনন কার্যক্রম শেষ হয় গত ১৭ জানুয়ারি।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাপেক্সকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, গ্যাস অনুসন্ধান কার্যক্রম পরিকল্পনা অনুসারে চালাতে হবে। ২০২২-২৫ সময়কালের মধ্যে পেট্রোবাংলা মোট ৪৬ টি অনুসন্ধান, উন্নয়ন ও ওয়ার্কওভার কূপ খননের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

অফশোর ও অনশোরে গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলন কার্যক্রম আরও বাড়ানোর নির্দেশ দিয়ে এসময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার আন্তরিক ভাবে কাজ করছে। দেশীয় জ্বালানির উৎস অনুসন্ধান কার্যক্রম বাড়ানোর সাথে সাথে কাতার, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ব্রুনেই সহ গ্যাস ও তেল উৎপাদনকারী দেশসমূহের সাথে দীর্ঘ মেয়াদী ও স্বল্প মেয়াদী চুক্তির প্রচেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে।