মঠবাড়িয়ায় স্কুলপড়ুয়া গৃহবধূ হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৩


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ৫:৫৯ অপরাহ্ণ /
মঠবাড়িয়ায় স্কুলপড়ুয়া গৃহবধূ হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৩

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মারিয়া আক্তার তন্বী (১৫) নামে দশম শ্রেণি পড়ুয়া এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামীর পরিবারের তিনজনকে গ্রেফতার করেছে মঠবাড়িয়া থানার পুলিশ। অন্য দিকে স্বামীর পরিবারের লোকদের দাবি বনিবনা না হওয়ায় সে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে গ্রেফতার ব্যক্তিদের আদালতে পাঠানো হয়। এর আগে সকালে নিহতের ভাই চারজনকে আসামি করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা করেন।

আসামিরা হলেন নিহত তন্বী আক্তারের স্বামী পৌর শহরের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মিনহাজুল রহমান রাব্বি, শ্বশুর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মুজিবুর রহমান, শাশুড়ি শিরিন বেগম, ননদ মাকসুদা আক্তার।

তন্বী উপজেলার ঘোষের টিকিকাটা গ্রামের দুবাই প্রবাসী হাবিবুর রহমানের মেয়ে এবং মঠবাড়িয়া কে এম লতীফ ইনষ্টিটিউশনের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

তন্বীর চাচাত ভাই ফোরকার হোসেন জানান, দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া তন্বী রাব্বির সাথে প্রেমে জড়িয়ে তিন মাস আগে ঢাকায় পালিয়ে যায়। এদিকে তন্বীর মা শোক সইতে না পেরে স্টোক করে মারা যান। পরে ৩ নম্বর ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর মঞ্জুর রহমান শিকদার ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিয়ার রহমান মিলনের মধ্যস্থতায় সম্প্রতি তাদের বিয়ে হয়।

ঢাকায়ও তাদের বিয়ে হয়েছিল। বিয়ের পরে বাড়িতে থেকে তন্বী তার ভাইকে মাঝে মধ্যে ফোন দিয়ে যোগাযোগ করত। গতকাল সোমবার সকালে ভাইকে যেতে বললে, তন্বীর ভাই ব্যস্ত থাকায় যেতে পারেনি। বিকেলে আবারো যেতে বললে তন্বীর ভাই যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নেয়। ৫টার দিকে তাকে বলা হয় হাসপাতালে যেতে। হাসপাতালে গিয়ে বোনের লাশ দেখতে পান।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, সোমবার রাতেই লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। দুপুরেই নিহতের শ্বশুর, শাশুড়ি ও ননদকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের বিকেলে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পলাতক রাব্বিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।