ভোলায় রাতের আঁধারে যুবলীগ নেতাকে ডেকে নিয়ে হাত-পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : এপ্রিল ২, ২০২৩, ৭:৪৫ অপরাহ্ণ /
ভোলায় রাতের আঁধারে যুবলীগ নেতাকে ডেকে নিয়ে হাত-পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলার লালমোহনে রাতে আঁধারে যুবলীগ নেতাকে বাজার থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। আহত যুবলীগ নেতার নাম সিরাজ (৪০)। তিনি বর্তমানে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। সিরাজ লালমোহন পৌরসভা ১১ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও একই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সদস্য। তার বাড়ি ওই ওয়ার্ডের বালুরচর এলাকায়।

শনিবার দিবাগত রাতে পৌরসভার মিন্টু মিয়ার খামার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত যুবলীগ নেতা সিরাজের স্ত্রী জান্নাত বেগম জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয় মুন্সিগঞ্জ বাজারের চায়ের দোকান থেকে এক নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেহেরের কথা বলে পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, ১১ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সিরাজ দালাল, মাসুম, সাদ্দাম, জসিম ও নুরনবীসহ ৩০-৪০জন মিলে তাকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে ওই এলাকায় নিয়ে রড দিয়ে তার হাত, পা ও মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারধর করে। এতে তার দুই পায়ের হাটু ও বাম হাতের কব্জি ভেঙে গিয়ে মাথা ফেটে যায়।

পরে তাকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে যায় হামলাকারীরা। তারাবি নামাজ শেষে পরিবারের লোকজন তাকে খুজতে বের হলে হাসপাতালের সামনে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পরে উদ্ধার করে প্রথমে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এরপর ভোলা সদর হাতপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপাারে অভিযুক্ত লালমোহন পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মেহেরাব অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, সিরাজ বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে জড়িত থাকায় তার নামের একাধিক মামলা আছে। গত রাতের মারধরের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নিজেদের স্বার্থ হাসিল করতে এ সকল মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে।