বরিশালে গৃহবধূকে যৌতুকের জন্য ছাদ থেকে ফেলে হত্যা চেস্টা, বিচারের দাবীতে পরিবারের মানববন্ধন


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৩, ২০২৩, ৩:২৪ অপরাহ্ণ /
বরিশালে গৃহবধূকে যৌতুকের জন্য ছাদ থেকে ফেলে হত্যা চেস্টা, বিচারের দাবীতে পরিবারের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল : বরিশাল নগরীতে ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দিতে না পারায় গণধর্ষন করে নাবালিকা গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্ঠার ঘঠনায় স্বামি মোঃ রাকিব হোসেন ও রাকিবের ভগ্নিপতি রাজিব হাওলাদার সহ এই ঘটনার সাথে জড়িতদের বিচারের দাবীেেত বিক্ষোভ কেের পরিবারের সদস্যরা । আজ সোমবার (৩) এপ্রিল দুপুরে সদরেেরাডস্থ অশ্বিনী কুমার টাউন হল সম্মুখ সড়েেক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মেয়েকে হত্যা চেষ্ঠাকারীদের বিচারের দাবী কেের বক্তব্য রাখেন বাবা ও মামলার বাদী েেমাঃ রিপন হাওলাদার,ফুফা আব্দুর রাজ্জাক মিয়া,চাচা রাকিব হাওলাদার,ভগ্নিপতি মোঃ রুহুল আমিন সহ এলাকাবাশি।

উল্লেখ বরিশালে পালিয়ে বিয়ে করার সাত মাসের মাথায় যৌতুকের দাবিতে জান্নাতুল ফেরদৌসি নামে এক গৃহবধূকে ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।

গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে নগরীর রুপাতলী হাউজিং এলাকার ২২ নম্বর সড়কের সারা-জারা ভবনে এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ জান্নাতুল ফেরদৌসি নগরীর রুপাতলী শের-ই বাংলা সড়কের দিনমজুর নির্মান শ্রমিক রিপন হাওলাদারের মেয়ে।

ওই গৃহবধূ মা নূপুর বেগম জানান, তার মেয়ে রুপাতলী এলাকার এ ওয়াহেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। সাত মাস আগে রুপাতলী ভাসানী সড়কের বাসিন্দা অটোচালক রাকিব হোসেনের সঙ্গে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে তার মেয়ে। পরে মেয়ে

তিনি আরো বলেন, এরপর থেকে মেয়ে ভাসানী সড়কের স্বামীর বাসায় থাকতো। দুই মাস আগে মেয়েকে বাসায় দিয়ে যায় জামাই রাকিব। তখন বলে দুই লাখ টাকার ফার্নিচার দিয়ে মেয়েকে পাঠিয়ে দেবেন। আমাদের সামর্থ্য না থাকায় মেয়েকে না পাঠানোর সিদ্বান্ত নেই। কিন্তু কয়েকদিন আগে আবারো জামাইয়ের সঙ্গে পালিয়ে যায় মেয়ে। এরপর আর খোঁজ নেইনি। বৃহস্পতিবার রাতে এক লোক আমাকে হাসপাতালে আসতে বলেন। আমরা আসার পর মেয়ে শুধু এটুকুই বলেছে,

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতয়ালী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ আল বারী বলেন, মেয়েটি সুস্থ না হলে কি ঘটনা ঘটেছিল বলতে পারবো না। পরিবারের পক্ষ থেকে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে মামলা করা হলে আমরা মেয়ের স্বামি অভিযুক্ত মোঃ রাকিবকে গ্রেফতার করেছি।