আমতলীতে তরমুজের ট্রাক থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১১, ২০২৩, ৩:৩২ অপরাহ্ণ /
আমতলীতে তরমুজের ট্রাক থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ

বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনার আমতলীতে হাট-বাজারের রসিদ ব্যবহার করে ট্রাকপ্রতি ৫০০ থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত চাঁদা আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ট্রাকচালক ও তরমুজ ব্যবসায়ীরা। আমতলী উপজেলার আঠারোগাছিয়া, হলদিয়া, কুকুয়া, চাওড়া ও আমতলী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ব্যাপক তরমুজ চাষ হয়।

আমতলীর উৎপাদিত তরমুজ সুস্বাদু হওয়ায় প্রতি বছরের মতো এ বছরও দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ব্যবসায়ীরা এসে তরমুজ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। ওই পাইকারী ব্যবসায়ীরা তাদের ক্রয়কৃত তরমুজ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে বিক্রি করেন।

তরমুজ পরিবহনে প্রতিদিন আমতলী উপজেলার গাজীপুর, কুকুয়া, মহিষকাটা, হাজার টাকার বাঁধ, সুবান্দি, দফাদারের হাট, কালিগঞ্জ বাজার, তালুকদার বাজার, বিশ্বাসের হাট, কলংক, বান্দ্রা ও পূর্বচিলায় অবস্থান করা ট্রাকগুলো থেকে খাজনার নামে হাটের ইজারাদার পরিচয়ে চাঁদা তোলা হয়।

হাট-বাজারের রশিদ ব্যবহার করে ওই সকল তরমুজ বোঝাই ট্রাক থেকে প্রতিদিন চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। দাবিকৃত চাঁদা না দিলে তরমুজ বোঝাই করা ট্রাক ছাড়তে দেওয়া হয় না বলে অভিযোগ করেন মাহফুজ নামের এক ট্রাক চালকসহ একাধিক ট্রাক চালক।

হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ইজারাদার পরিচয়দানকারী মো. আলমগীর হোসেন বলেন, চাঁদা নয়, সুবান্দি বাজার থেকে তরমুজ বোঝাই প্রতিটি ট্রাক থেকে ৫০০ টাকা করে খাজনা আদায় করছি। গাজীপুর বন্দরে সাবেক ইউপি সদস্য মো. ওহাব হাওলাদার খাজনার কথা বলে ট্রাক প্রতি এক হাজার থেকে দেড় হাজার টাকা আদায় করছেন। কিন্তু ওহাব হাওলাদার অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন।

তরমুজ বোঝাই করা একাধিক ট্রাকচালক ও ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, আমতলীর দফাদারের হাট ও কালিগঞ্জ বাজার থেকে শাহজাদা তালুকদার, বিশ্বাসের হাটে মাসুদ মিয়া, হলদিয়া অফিস বাজারের পশ্চিমপার মাসুম মোল্লা, কুকুয়া বাজারের আইয়ুব মিয়া প্রতিদিন তরমুজ বোঝাই ট্রাক থেকে হাটের খাঁজনার নামে চাঁদা আদায় করছেন।

বগুড়ার ট্রাক চালক জয়নাল মিয়া বলেন, ট্রাকে তরমুজ লোড দিয়ে মহাসড়কে আসতে চার থেকে পাঁচ স্থানে ধাপে ধাপে চাঁদার টাকা দিতে হয়েছে। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) রণজিৎ সরকার বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। খোঁজ নিয়ে ওই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ আশরাফুল আলম বলেন, এভাবে তরমুজ বোঝাই ট্রাক থেকে টাকা নেওয়ার কথা নয়। যদি কোনো হাটের ইজারাদার এটা করে থাকেন, তার বিরুদ্ধে দ্রত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।