ঝালকাঠিতে শাহজাহান ওমরের নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নেয়ায় ২ বিএনপি নেতাকে অব্যাহতি


Barisal Crime Trace -FF প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৪, ২০২৩, ৫:৩৬ অপরাহ্ণ /
ঝালকাঠিতে শাহজাহান ওমরের নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নেয়ায় ২ বিএনপি নেতাকে অব্যাহতি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠি-১ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহজাহান ওমরের সাথে নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নেয়ায় দুই বিএনপি নেতাকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে ঝালকাঠি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য (দফতরের দায়িত্বে) অ্যাডভোকেট মো: মিজানুর রহমান মুবিন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

ঝালকাঠি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো: সৈয়দ হোসেন ও সদস্যসচিব অ্যাডভোকেট মো: শাহাদাৎ হোসেন অব্যহতি প্রদানের সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেন।অব্যাহতি প্রাপ্তরা হলেন রাজাপুর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো: হেমায়েত হোসেন সেলিম ও মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক সম্পাদক মো: সামছুল আলম মানিক।

আগামী ৭ জানুয়ারির দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন বৃহস্পতিবার নৌকার প্রার্থী হিসেবে ঝালকাঠি-১ আসনে মনোনয়পত্র জমা দেয়ার পর গণমাধ্যমের সামনে আসেন বিএনপির সাবেক এই ভাইস চেয়ারম্যান।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কারওয়ান বাজারে নিজের আইন পেশার চেম্বারে শাহজাহান ওমর বলেন, ‘এই মুহূর্ত থেকে আমি আর ‘বিএনপি ম্যান’ নই।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান মুবিন বলেন, ‘রাজাপুর উপজেলা বিএনপির মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক সম্পাদক সামছুল আলম মানিক ফেইসবুক লাইভে শাহজাহান ওমরের পক্ষে নৌকার নির্বাচন করার কথা বলেছেন। আর যুগ্ম সম্পাদক হেমায়েত হোসেন সেলিম নির্বাচনী বাছাই কার্যক্রমে থাকাসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে ওমরের পাশে ছিলেন। যা দলীয় সিদ্ধান্তবিরোধী ও শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল। যার কারণে তাদের দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

গত ২৮ অক্টোবর ঢাকায় বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষের পর গাড়ি পোড়ানোর মামলায় ৫ নভেম্বর গ্রেফতার হন শাহজাহান ওমর। ২৪ দিন পর জামিনের আদেশ এলে সন্ধ্যাতেই মুক্তি পান তিনি। পরের দিন বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি স্বাক্ষরিত মনোনয়পত্র ফেইসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

গত রোববার আওয়ামী লীগ যে ২৯৮টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করে, সেখানে ঝালকাঠি-১ আসন দেয়া হয় তিনবারের সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুনকে। তবে শেষ মুহূর্তে তা পাল্টেছে ক্ষমতাসীন দল।