বাজেটে ইমাম-পুরোহিতসহ ধর্মীয় ব্যক্তিদের আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করা হবে: অর্থমন্ত্রী


Barisal Crime Trace -HR প্রকাশের সময় : জুন ৭, ২০২৪, ১:০৭ পূর্বাহ্ণ /
বাজেটে ইমাম-পুরোহিতসহ ধর্মীয় ব্যক্তিদের আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করা হবে: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: প্রস্তাবিত ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে সুদমুক্ত ঋণ দেওয়ার মাধ্যমে অসচ্ছল ইমাম, সেবাইত ও পুরোহিতসহ ধর্মীয় ব্যক্তিদের আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করার কার্যক্রম নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) জাতীয় সংসদে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।এটি স্বাধীন বাংলাদেশের ৫৪তম বাজেট৷ বর্তমান সরকারের টানা চতুর্থ মেয়াদের প্রথম বাজেট, টানা ১৬তম এবং ২১তম বাজেট এটি৷ অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর প্রথম বাজেট।

অর্থমন্ত্রী বলেন, মসজিদ, মাদরাসা, ঈদগাহ, কবরস্থান, দুস্থ ব্যক্তি, মন্দির, প্যাগোডা, গির্জা ও উপাসনালয়ের উন্নয়নে অনুদান প্রদান এবং অবকাঠামো উন্নয়নের কার্যক্রম অব্যাহত আছে। এছাড়া ইসলামী জ্ঞান ও সংস্কৃতিচর্চা এবং ধর্মীয় নৈতিক শিক্ষা দেওয়ার জন্য দেশের সব জেলা ও উপজেলায় ৫শ ৬৪টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণের কাজ চলছে।

এ পর্যন্ত ৩শ’টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করা হয়েছে এবং চলতি অর্থবছর ১শ’টি মডেল মসজিদ উদ্বোধনের পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, সব ধর্মের অনুসারীদের মধ্যে ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নৈতিকতা বিকাশের মাধ্যমে উদার ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সর্বজনীন সমাজ প্রতিষ্ঠায় সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

এবারের বাজেটের প্রতিপাদ্য হলো ‘সুখী, সমৃদ্ধ, উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকার’। প্রস্তাবিত ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটের আকার ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকা। যা জিডিপির ১৪ দশমিক ২ শতাংশ। এটি চলতি বাজেটের তুলনায় ৪ দশমিক ৬০ শতাংশ বেশি। টাকার অঙ্কে বাড়ছে ৩৫ হাজার ২১৫ কোটি টাকা। যা চলতি (২০২৩-২৪) অর্থবছরে ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা বাজেট ঘোষণা করে সরকার। আর বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) ধরা হয়েছে ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকা, যা গত অর্থবছর ছিল ২ লাখ ৬৩ হাজার কোটি টাকা। নতুন বাজেটে সামগ্রিক ঘাটতি ধরা হচ্ছে ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে সামগ্রিক ঘাটতি ধরা হয় ২ লাখ ৮৩ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। মোট রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪শ’ কোটি টাকা, যা গত অর্থবছর ছিল ৫ লাখ কোটি টাকা।

আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে জিডিপি (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ। টাকার অংকে এটি হতে পারে ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ৪শ ১৪ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে যা ছিল ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। পরে তা কমিয়ে সাড়ে ৬ শতাংশ করা হয়। মূল্যস্ফীতি ৬ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে আটকে রাখা হবে বাজেটে।