গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ৩৮টি ভোট কেন্দ্র


Barisal Crime Trace -HR প্রকাশের সময় : জুন ৮, ২০২৪, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ /
গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ৩৮টি ভোট কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদক,বরিশাল // ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে স্থগিত হওয়া জেলার গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে কাল রোববার (৯ জুন)।

 

ওই উপজেলার একটি পৌরসভাসহ সাতটি ইউনিয়নের ৩৮টি ভোট কেন্দ্রকে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ দাবি করে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে আবেদন করেছেন একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী।

 

শুক্রবার দুপুরে ওই উপজেলার কাপ-পিরিচ মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মনির হোসেনের দায়ের করা আবেদনে জানা গেছে, উপজেলার সর্বমোট ৬৯টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৩৮টি ভোট কেন্দ্র অধিক ঝুঁকিপূর্ণ। ওইসব কেন্দ্রগুলো প্রতিদ্বন্ধী মোটরসাইকেল মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে দখল করার নানা ষড়যন্ত্র করে আসছে। তাই ভোটগ্রহণের দিন অন্যান্য কেন্দ্রের পাশাপাশি অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্রে স্থায়ীভাবে বাড়তি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েনের দাবি করা হয়।

 

চেয়ারম্যান প্রার্থী মনির হোসেনের আবেদনে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্রের তালিকার মধ্যে রয়েছে-পৌর এলাকায় ছয়টি, খাঞ্জাপুর ইউনিয়নে ছয়টি, বার্থী ইউনিয়নে ছয়টি, চাঁদশী ইউনিয়নে দুইটি, মাহিলাড়া ইউনিয়নে একটি, বাটাজোর ইউনিয়নে চারটি, নলচিড়া ইউনিয়নে সাতটি ও সরিকল ইউনিয়নে ছয়টি ভোট কেন্দ্র।

 

 

উল্লেখ্য, গৌরনদী উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুইজন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুইজন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। নির্বাচন শুরুর প্রাক্কালে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

 

ওইসময় একজন ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করা হয়। পরবর্তীতে একাধিকবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া প্রায় প্রতিদিন এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে অপর প্রার্থীর কর্মীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। যেকারণে নির্বাচনের শুরু থেকে অদ্যবর্ধি দেশব্যাপী আলোচিত গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন।