পটুয়াখালীতে ট্রাকচালক হত্যা মামলায় প্রধান আসামি গ্রেপ্তার


Mahadi Hasan প্রকাশের সময় : জুন ৮, ২০২৪, ১:০১ অপরাহ্ণ /
পটুয়াখালীতে ট্রাকচালক হত্যা মামলায় প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: পটুয়াখালীতে ট্রাকচালক আলআমিন হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. শাহিনকে (২৮) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। শুক্রবার (০৭ জুন) দিনগত রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর মিডিয়া সেল।

গ্রেপ্তার শাহিন পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার খলিশাখালী এলাকার মো. সিদ্দিক হাওলাদারের ছেলে। মিডিয়া সেলের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, চালক আলআমিন (৩৩) গত ১৭ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টার দিকে ট্রাকে লোহার রড বোঝাই করে চট্টগ্রাম থেকে বরিশালের উদ্দেশে রওয়ানা দেওয়ার কথা ট্রাকের মালিককে ফোন কলে জানান।

এরপর ১৮ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে চালক আলআমিন ট্রাক নিয়ে পটুয়াখালীর বাউফল থানাধীন কালিশুরি পয়েন্টে পৌঁছানোর কথা জানান ট্রাক মালিককে। তবে ওই ফোন কলের পর আর ট্রাক মালিক ও স্বজনদের কারও সঙ্গে চালক আলআমিনের যোগাযোগ হয়নি।

এদিকে ২০ এপ্রিল পটুয়াখালীর দশমিনা থানাধীন পাতারচর গ্রামের তেতুলিয়া নদী থেকে চালক আলআমিনের বিকৃত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহ শনাক্তের পর আলআমিনের মামা মো. সবুজ বাদী হয়ে দশমিনা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলাটি তদন্ত করে শাহিন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সম্পৃক্ত বলে নিশ্চিত হন। পরে থানা থেকে শাহিনকে গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাব-৮ এর অধিনায়কের কাছে একটি অধিযাচন পত্র পাঠায়।

এর ধারাবাহিকতায় বরিশাল র‌্যাব-৮ এর সদর কোম্পানি ছায়াতদন্ত ও গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায়। পরে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে র‌্যাব-১১ সদর কোম্পানির সহায়তায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লা রেললাইন এলাকা থেকে শাহিনকে গ্রেপ্তার করে। পাশাপাশি ট্রাকসহ ট্রাকে থাকা ১৩ টন রডের মধ্যে নয় টন ৬৯৩ কেজি রড উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার শাহিনকে পটুয়াখালী জেলার দশমিনা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। আর ট্রাক ও ট্রাকে থাকা ১৩ টন রড গায়েব করে ফেলার উদ্দেশে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে বলেও জানিয়েছে র‌্যাব।