স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ দোকানে রেখে তালা মেরে পালাল স্বামী


Mahadi Hasan প্রকাশের সময় : জুন ৮, ২০২৪, ৭:৫২ অপরাহ্ণ /
স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ দোকানে রেখে তালা মেরে পালাল স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: গাজীপুরের শ্রীপুরে ফার্মেসিতে স্ত্রীকে বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যার পর বাহির থেকে দোকান তালাবদ্ধ করে পালিয়েছে স্বামী। খবর পেয়ে পুলিশ গতকাল শুক্রবার (৭ জুন) মধ্যরাতে ওই দোকানের ভেতর থেকে নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে।

আজ শনিবার (৮ জুন) মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। তেলিহাটি ইউনিয়নের মুলাইদ গ্রামের আদিব ডাইং কারখানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম রেহেনা আক্তার (২৫)। সে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার কিবরিয়া হোসেনের স্ত্রী। ওই এলাকায় স্বামী-স্ত্রী বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। পাশেই একটি ওষুধের দোকান (ফার্মেসি) চালাতেন কিবরিয়া হোসেন।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার ফার্মেসি খোলা ছিল না। সকাল থেকেই সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই ফার্মেসি বন্ধ ছিল। ক্রেতারা এসে ফিরে যাচ্ছিল। পরে কয়েকজন ক্রেতা সাটারের নিচ দিয়ে উকি দিলে দোকানে নারীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

এ সময় মার্কেট মালিক পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে রাতে তালা ভেঙে ওই নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের স্বামী এলাকায় ছিলেন না। ধারনা করা হচ্ছে স্ত্রীকে খুন করে পালিয়ে গেছে স্বামী কিবরিয়া হোসেন।

শ্রীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান জানান, ‘খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে রাতেই দোকানের তালা ভেঙে ভেতর থেকে নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে। দোকানের ভেতরে সোফায় পড়ে ছিল মরদেহটি। পাশ থেকে রক্তাক্ত বটি উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি দাবি করেন, পারিবারিক কলহের জেরেই স্বামী স্ত্রীকে খুন করে পালিয়েছেন। স্বামীকে ধরতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মরদেহ পাঠানো হয়েছে।