ট্রাক ড্রাইভার আল-আমিনকে হত্যা: প্রধান আসামী শাহিনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর


Mahadi Hasan প্রকাশের সময় : জুন ৯, ২০২৪, ৫:৫৩ অপরাহ্ণ /
ট্রাক ড্রাইভার আল-আমিনকে হত্যা: প্রধান আসামী শাহিনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

 বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: ট্রাক ড্রাইভার আল-আমিনকে হত্যা করে ট্রাকে থাকা একেএস কোম্পানির রড ছিনতাই করার ঘটনা প্রধান আসামী ঢাকা নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লা রেললাইন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া মোঃ শাহিন (২৮) কে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহিনকে পুলিশ পাহাড়ায় আদালতে হাজির করা হয় ।

এসময় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। আদালতের বিচারক উভয় পক্ষের আইনজীবিদের শুনানি শেষে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গ্রেফতারকৃত শাহিন দশমিনা উপজেলার আলিপুরা ইউনিয়নের খলিশাখালী গ্রামের মোঃ সিদ্দিক হাওলাদারের ছেলে। শাহিন ট্রাক ড্রাইভারকে খুন করে ১৩ মেট্রিকটন রড চিনতাইয়ের ঘটনার দিন গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ থেকে পলাতক ছিলেন।

মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলাটি তদন্ত করে শাহিন হত্যাকান্ডের ঘটনায় সম্পৃক্ত বলে নিশ্চিত হন। পরে থানা থেকে শাহিনকে গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাব-৮ এর অধিনায়কের কাছে একটি পত্র পাঠায়। এর ধারাবাহিকতায় বরিশাল র‌্যাব-৮ এর সদর কোম্পানি ছায়াতদন্ত ও গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায়।পরে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে র‌্যাব-১১ সদর কোম্পানির সহায়তায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার তল্লা রেললাইন এলাকা থেকে গত শুক্রবার (০৭ জুন) রাতে শাহিনকে গ্রেপ্তার করে।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১৭তারিখ চট্টগ্রামের আবুল খায়ের ইন্ডাট্রিজ এর কারাখানা থেকে ঢাকা মেট্রো-ট-১৬-৫১৩৮ নম্বরের একটি ট্রাক ১৩মেট্রিকটন রড নিয়ে বাউফলের কালিশুরী বাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। পরের দিন ১৮তারিখ বাউফল উপজেলার কালিশুড়ীর খান এন্টারপ্রাইজে রডগুলো আনলোড করার কথা ছিলো ।

কিন্তু ১৮তারিখ ট্রাকের ড্রাইভার আল-আমিনকে ফোন করে ফোন বন্ধ পান তার মামা ট্রাকের মালিক মো. সবুজ। ২০তারিখ দশমিনা উপজেলার রনগোপালদীর পাতার চর তেঁতুলিয়া নদীতে দুই হাত বাধা অবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে দশমিনা (হাজির হাট) নৌ-পুলিশ। পরে মামা সবুজ খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারেন ওই লাশ তার ভাগ্নে আল-আমিনের। ময়নাতদন্ত শেষে আল আমিনের লাশ চাঁদপুরে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

এঘটনায় নিহতের মামা বাদী হয়ে দশমিনা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপরই ঘটনার রহস্য উদঘাটনে নামে পুলিশের একাধিক টিম। পরে চলতি মাসের ২৩তারিখ মঙ্গলবার রাতে বাউফলের দাসপাড়া বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাসুদ রানার একতা এন্টারপ্রাইজের গোডাউন থেকে ছিনতাইকৃত ১৩মেট্রিকটন রডের প্রায় ৯মেট্রিকটন রড বাউফল থানা পুলিশের সহায়তায় দশমিনা (হাজির হাট) নৌ-পুলিশ উদ্ধার করে।

এবং একতা এন্টার প্রাইজের ম্যানেজার নান্নু মিয়া (৪৫), কর্মচারী দিলিপ (৫০) ম্যানেজার শাহাদুলকে (৪০) এবং দশমিনা উপজেলার ৬৯ নম্বর মধ্য জৌতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকও বিশিষ্ট ঠিকাদার মো. মজিবর রহমান (৪৫)কে পুলিশ আটক করেন।

অপরদিকে রড পরিবহনের কাজে নিয়োজিত ট্রাকটি বাকেরগঞ্জের বোয়ালিয়া বাহাদুরপুর এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এবিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দশমিনা (হাজির হাট) নৌ-পুলিশের এসআই আল-মামুন বলেন, পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দশ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে বিঞ্জ আদালতের বিচারক দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।