বরিশালে প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছে না মানুষ, কঠোর অবস্থানে পুলিশ

Barisal Crime Trace -HR
প্রকাশিত এপ্রিল ১৫ বৃহস্পতিবার, ২০২১, ০৩:২০ অপরাহ্ণ
বরিশালে প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছে না মানুষ, কঠোর অবস্থানে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশালে ভালোভাবেই দ্বিতীয় দিনের লকডাউন অতিবাহিত হয়েছে। অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না সাধারণ মানুষ। তবে আগের দিনের চেয়ে রাস্তায় বেড়েছে রিক্সা চলাচল। এদিকে লকডাউন এবং স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত করতে নগরীর ৩টি প্রবেশদ্বারে চেকপোস্ট স্থাপনসহ নগরীতে টহল জোরদার করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ। অপরদিকে লকডাউন এবং স্বাস্থ্য বিধি তদারকি করতে নগরীতে পৃথক দুটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন।

 

করোনা সংক্রমণ এড়াতে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনের দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবারও নগরীর বেশিরভাগ দোকানপাট বন্ধ। বরিশাল নগরী থেকে বন্ধ রয়েছে অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লা রুটের লঞ্চ ও বাস চলাচল। নগরীর অভ্যন্তরেও থ্রি-হুইলারসহ অন্যান্য গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। তবে বুধবার প্রথম দিনের চেয়ে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিন নগরীতে বেড়েছে রিক্সা চলাচল। রাস্তাঘাটে কিছু মানুষজন দেখা গেছে। কেউ জরুরি প্রয়োজনে আবার কেউ নানা অজুহাতে বেড়িয়েছেন রাস্তায়।

এদিকে লকডাউন এবং স্বাস্থ্য বিধি রক্ষায় নগরীর ৩টি প্রবেশদ্বারে চেকপোস্ট স্থাপন করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ। পাশাপাশি নগরীতে সর্বত্র জোরদার করেছে নজরদারি। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া জনসাধারণকে ঘর থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার। একান্ত প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হতে হলে মাস্ক পরিধান এবং শারীরিক দূরত্ব অনুসরণ করার তাগিদ দেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।

অপরদিকে লকডাউন এবং স্বাস্থ্য বিধি রক্ষায় জেলা প্রশাসনের দুই জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুমানা আফরোজ এবং অং মা চিং মারমার নেতৃত্বে পৃথক ভ্রাম্যমাণ আদালত নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে লকডাউন ও স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা করায় ১০ জন ব্যক্তিকে ২ হাজার ২শ টাকা জরিমানা আদায় করেন। জনস্বার্থে এই অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুমানা আফরোজ।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]