মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা, পুরোহিত গ্রেপ্তার

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ১৫ বৃহস্পতিবার, ২০২১, ০৮:২৬ অপরাহ্ণ
মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা, পুরোহিত গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটের গোলাপগঞ্জে মন্দিরে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গবিন্দ দাস বাবাজি ওরফে ফরেস্ট চৌহান (৪৬) নামে এক পুরোহিতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার বাঘা ইউনিয়নের কালাকোনা এলাকা থেকে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

 

গ্রেপ্তারকৃত গবিন্দ দাস টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ারের সিলিমপুর গ্রামের কালু চৌহানের ছেলে। দীর্ঘদিন থেকে কালাকোনা গ্রামে শ্রী শ্রী গিরিধারী জিও মন্দিরের পুরোহিত হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন গবিন্দ দাস।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মন্দিরের পাশ্ববর্তী বসবাসকারী এক তরুণী অন্যান্য দিনের মতো গত ১৩ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় ধর্মীয় শিক্ষা লাভের জন্য মন্দিরে যান। এ সময় মেয়েটিকে জরুরি কাজের কথা বলে মন্দির থেকে পাশে নিয়ে যায় পুরোহিত ও তার সহযোগী দিপংকর দেব তপন। সেখানে তারা মেয়েটির মুখে চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

 

এ সময় মেয়েটি তাদের কবল থেকে বাঁচতে ও নিজের সম্ভ্রম বাঁচাতে চিৎকার শুরু করে। এ সময় আশপাশ এলাকার লোকজন ও মেয়েটির আত্মীয়-স্বজন এগিয়ে গিয়ে তাকে অর্ধনগ্ন অবস্থা উদ্ধার করেন।

 

পরে ভুক্তভোগী তরুণীর দেয়া তথ্যমতে মন্দিরের পুরোহিত গবিন্দ দাস বাবাজি ওরফে ফরেস্ট চৌহানকে আটক করে গণধোলাই দেয় এলাকাবাসী। এরপর ধর্ষণের চেষ্টার বিষয়টি স্বীকার করেন পুরোহিত। এ সময় পুরোহিতের অপকর্মের সাথী কালাকোনা গ্রামের চতুল দেবের ছেলে দিপংকর দেব তপন (৩৮) পালিয়ে যায়।

 

ঘটনার পর ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে দুই জনের নাম উল্লেখ করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

 

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃbarishalcrimetrace@gmail.com