লকডাউনে বাঁধা দেওয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে মারধর

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ১৬ শুক্রবার, ২০২১, ০৪:৪০ অপরাহ্ণ
লকডাউনে বাঁধা দেওয়ায় ট্রাফিক পুলিশকে মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ করোনা ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সারাদেশের মত জয়পুরহাটে শুরু হয়েছে ৭ দিনের সর্বাত্মক লকডাউন। এই লকডাউনে বিধিনিষেধ বাস্তবায়নের দায়িত্বে থাকা তিন ট্রাফিক পুলিশকে মারধর করেছে স্থানীয় কয়েক যুবক।

 

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সকালে এই ঘটনায় জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা করা হয়েছে।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জয়পুরহাট শহরের বিআইডিসি মোড় এলাকায় এঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- জয়পুরহাট পৌর শহরের বুলুপাড়া মহল্লার ফকির মন্ডলের ছেলে সান্টু মন্ডল (৩৫), সাহেব পাড়া মহল্লার মোসলেম উদ্দিনের ছেলে চঞ্চল হোসেন (৩০), রুপনগর মহল্লার সোলায়মান আলীর ছেলে সাগর হোসেন (৩৫), গুলশান মোড় মহল্লার শফিকুল ইসলামের ছেলে আশিকুর রহমান (৩০)।

 

ওসি আলমগীর জাহান জানান, করোনা ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে জয়পুরহাটে কঠোর অবস্থানে ছিল পুলিশ। বিকেলে শহরের বিআইডিসি মোড়ে পুলিশের চেক পোস্টের সামনের রাস্তা দিয়ে সান্টু মোটরসাইকেলযোগে যাচ্ছিলেন।

 

সরকারি নির্দেশনা অমান্য, মুখে মাস্ক এবং মাথায় হেলমেট না থাকায় চেক পোস্টের দায়িত্বে থাকা ট্রাফিক পুলিশ তাকে মোটরসাইকেলের সঠিক কাগজপত্র দেখাতে বললেই সান্টুসহ স্থানীয় কয়েকজন যুবক ৩ ট্রাফিক পুলিশকে মারধর করে।

 

এ ঘটনায় ৩ ট্রাফিক পুলিশ আহত হন। তাদেরকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বর্তমানে ব্যারাকে আছেন।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]