বরিশালে ২৪ ঘন্টায় উপসর্গসহ করোনায় মৃত্যু ১০

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত আগস্ট ১৮ বুধবার, ২০২১, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
বরিশালে ২৪ ঘন্টায় উপসর্গসহ করোনায় মৃত্যু ১০

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥ বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় চারজন ও উপসর্গ নিয়ে ছয়জন মারা গেছেন। একই সময়ে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৩২২ জন। আর এ সময়ের মধ্যে শনাক্তের তিনগুন, ৯৯১ জন সুস্থতা লাভ করেছেন। বুধবার (১৮ আগস্ট) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ছয়জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বিভাগের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ছয়জনের মধ্যে বরিশালে তিনজন ও বরগুনায় একজন রয়েছেন। সব মিলিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬১০ জনে। একই সময় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩২২ জন। এ নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪১ হাজার ৯১৯ জনে। আর এ সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৯৯১ জন, যা নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২৭ হাজার ২৩৩ জন।

 

আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল জেলায় নতুন ১৪৬ জন নিয়ে মোট ১৭ হাজার ২০৯ জন, পটুয়াখালীতে নতুন ৪৩ জন নিয়ে মোট ৫ হাজার ৭৬০ জন, ভোলায় নতুন ৭২ জনসহ মোট ৫ হাজার ৯০৩ জন, পিরোজপুরে নতুন ২২ জনসহ মোট ৫ হাজার ৩৪ জন, বরগুনায় নতুন ১৮ জনসহ মোট ৩ হাজার ৫৬৩ জন ও ঝালকাঠিতে নতুন ২১ জন নিয়ে মোট ৪ হাজার ৪৫০ জন রয়েছেন। এদিকে, শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধু বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ছয়জনের এবং করোনা ওয়ার্ডে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে শুধু শেবাচিম হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৯২৫ জন এবং করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৯২৫ জনের মধ্যে ৭০ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনও হাতে পাওয়া যায়নি।

পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার) সকাল পর্যন্ত শেবাচিমের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ৯ জন ও করোনা ওয়ার্ডে ১২ জন ভর্তি হয়েছেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ১৬৯ জন চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে ৬৬ জন করোনা ওয়ার্ডে এবং ১০৩ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আরটি পিসিআর ল্যাবে মোট ১৮৯ জন করোনা পরীক্ষা করান। এর মধ্যে ২৬ দশমিক ৪৫ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]