কমেছে বরিশালে করোনায় আক্রান্ত-মৃত্যুর সংখ্যা

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত আগস্ট ২১ শনিবার, ২০২১, ১২:১৬ অপরাহ্ণ
কমেছে বরিশালে করোনায় আক্রান্ত-মৃত্যুর সংখ্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় দু’জন ও উপসর্গ নিয়ে চারজন মারা গেছেন।

একই সময়ে গোটা বরিশাল বিভাগে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৯৭ জন। ফলে দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর টানা কয়েক মাস পরে এটাই প্রথম বরিশাল করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সর্বনিম্ন সংখ্যা। আর এ সময়ের মধ্যে শনাক্তের আটগুনেরও বেশি ৮৫৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

 

শনিবার (২১ আগস্ট) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।

 

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে চারজন ও করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া দু’জনের মধ্যে বরিশালে একজন ও ভোলায় একজন রয়েছেন। সব মিলিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬২৪ জনে।

 

একই সময় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৭ জন। এ নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪২ হাজার ৪৩৭ জনে। আর এ সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৮৫৯ জন, যা নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৩০ হাজার ৫২২ জন।

 

আক্রান্তদের মধ্যে বরিশাল জেলায় নতুন ২৭ জন নিয়ে মোট ১৭ হাজার ৩৯৩ জন, পটুয়াখালীতে নতুন আটজন নিয়ে পাঁচ হাজার ৮৩২ জন, ভোলায় নতুন ৫৪ জনসহ ছয় হাজার ৭২ জন, পিরোজপুরে নতুন চারজনসহ পাঁচ হাজার ৭০ জন, বরগুনায় নতুন তিনজনসহ তিন হাজার ৬০৭ জন ও ঝালকাঠিতে নতুন একজন নিয়ে চার হাজার ৪৬৩ জন রয়েছেন।

 

এদিকে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালকের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধু শেবাচিম হাসপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে চারজনের ও করোনা ওয়ার্ডে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। যা নিয়ে শুধু শেবাচিম হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডেই উপসর্গ নিয়ে ৯৩৫ জন ও করোনা ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা ৯৩৫ জনের মধ্যে ৮১ জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট এখনও হাতে পাওয়া যায়নি।

 

ওই হাসপাতাল পরিচালক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শেবাচিমের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৫ জন ও করোনা ওয়ার্ডে নয়জন ভর্তি হয়েছেন। করোনা ও আইসোলেশন ওয়ার্ডে এখন ১৪৮ জন চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে ৫৫ জন করোনা ওয়ার্ডে ও ৯৩ জন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আরটি পিসিআর ল্যাবে ১৯০ জন করোনা পরীক্ষা করান। এর মধ্যে ২৫ দশমিক ২৬ শতাংশ পজিটিভ শনাক্তের হার।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]