১৯৭১ সালের ২৩ আগস্ট শাহাদাত বরণ করেন শহীদ মোশারফ হোসেন

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত আগস্ট ২২ রবিবার, ২০২১, ০১:২৬ অপরাহ্ণ
১৯৭১ সালের ২৩ আগস্ট শাহাদাত বরণ করেন শহীদ মোশারফ হোসেন
বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি : মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের একজন বীর শহীদ মোশাররফ হোসেন।যিনি ১৯৭১সনের ২৩ আগষ্ট পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর পৈশাচিক হত্যাকান্ডের  শিকার হয়ে শাহাদাতবরণ করেছিলেন।
বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের বকশির চর গ্রামের এক সাধারণ মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই বীর শহীদ। প্রখর মেধার অধিকারী ক্ষণজন্মা এই শহীদ ছোটবেলা থেকেই রাজনীতি সচেতন ছিলেন।
পশ্চিম পাকিস্তান কর্তৃক অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে সর্বদা প্রতিবাদী ছিলেন তিনি।তাইতো ৬০-র দশকে তার ঘনিষ্ট বন্ধু বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রথম চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আঃ ওহাব খানের সাথে বরিশাল ব্রজমোহন কলেজে পড়াশোনা করা অবস্থায় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যোগদান করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের নেতৃত্বে আয়োজিত পশ্চিম পাকিস্তান বিরোধী নানা আন্দোলন -সংগ্রামে কৃতিত্বের সাথে অংশগ্রহণ করতেন তিনি।
বি.এ পাশ করার পর ৭১-র যুদ্ধের প্রায় তিন বছরপূর্বে তিনি পিরোজপুরের কাউখালীর এল.এস.ডি খাদ্য গোডাউনে বিশেষ পদে সরকারী চাকুরীর জন্য নিয়োগ পান যার সুবাদে সরাসরি স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণ করতে পারেননি।কিন্তু এদেশের মানুষ পরাধীনতার গ্লানি থেকে মুক্তি পাবে, এদেশ একদিন পৃথিবীর মানচিত্রে স্বাধীন দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এই স্বপ্নই তাকে সবসময় ভাবিয়ে তুলতো।যদিও তিনি পশ্চিম পাকিস্তান সরকারের অধীনেই চাকরি করতেন, তারপরও তিনি নির্বিঘ্নে,অকপটে বড়গলায় স্বাধীনতা সংগ্রামী বাঙ্গালীদের পক্ষেই কথা বলতেন।
হয়তো এটাই তার জীবনের জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়।স্থানীয় রাজাকারদের সহযোগিতায় ১৯৭১ সালের এই দিনে খুব ভোরবেলায় তার কর্মক্ষেত্র ঘেরাও করা হয়।তাকে দেখামাত্রই গুলি করা হয়।বৃদ্ধ বাবা-মা কোয়াটার থেকে বেরিয়ে দেখতে পায় তাদের গুলিবিদ্ধ সন্তানকে। বাবা-মার কোলে মাথা রেখে কালিমা পড়তে পড়তে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।
এভাবেই একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিকের সকল স্বপ্ন নিঃশেষ হয়ে যায় আর সেই সঙ্গে তার পরিবারের মাঝে নেমে আসে এক কালো অধ্যায় যা আজও তাদের হ্রদয়কে ক্ষত- বিক্ষত করে তোলে।মহান সৃষ্টিকর্তা যেন তার আখিরাতের জীবনে সুখে-শান্তিতে রাখেন সকলেই সেই কামনা করবেন।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]