ইউএনওর বাড়িতে এবার ধারালো অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা !

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত আগস্ট ৩০ সোমবার, ২০২১, ০৭:৪১ অপরাহ্ণ
ইউএনওর বাড়িতে এবার ধারালো অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা !

ক্রাইমট্রেস ডেস্ক ॥ ধারালো অস্ত্র নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বাড়িতে দস্যুতার অভিযোগে এক ছাত্রলীগ নেতাসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার বিকেলে তাঁদের মুন্সীগঞ্জ আদালতে সোপর্দের পর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের নাসিরুদ্দিন ও তাঁর সহযোগী আল হাসান। হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রিফাত হোসেন জানিয়েছেন, নাসিরুদ্দিন হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া নাসিরুদ্দিনের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এর আগে গত শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গজারিয়ার ইউএনও জিয়াউল ইসলাম চৌধুরীর বাড়িতে ছুরি নিয়ে দস্যুতার সময় নাসিরুদ্দিন ও আল হাসানকে আটকের পর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন আনসার সদস্যেরা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ‘গত শনিবার নাসির ও তাঁর সহযোগী আল হাসান ইউএনওর বাড়িতে ধারালো অস্ত্র নিয়ে দস্যুতার চেষ্টা করেন। এ সময় সেখানে এক আনসারকে ছুরি দিয়ে ভয় দেখাতে থাকলে অপর সদস্যেরা উপস্থিত হয়ে তাঁদের আটকের পর আমাদের কাছে হস্তান্তর করেন। গ্রেপ্তার করা ব্যক্তিদের কাছ থেকে একটি ধারালো দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।’

এ ঘটনায় আনসার সদস্য আমিনুল বাদী হয়ে শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। গতকাল রোববার বিকেলে মুন্সীগঞ্জ আদালতে সোপর্দের পর তাঁদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ওসি আরও জানান, আগামীকাল রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হবে। ছাত্রলীগ নেতা নাসিরের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে ইউএনও জিয়াউল ইসলাম চৌধুরীকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) কাজী নাহিদ রসূল জানান, ঘটনাটি শুনেছি। গজারিয়ার ইউএনওর বাসভবনে দুজন দুর্বৃত্ত ঢুকলে তাদের ছোরাসহ আনসার সদস্যেরা আটক করেন। এরপর পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। তাঁরা ছাত্রলীগের কর্মী কি না, তা আমার জানা নেই।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]