বরিশালে আলোচিত দুই হত্যাকাণ্ডের ৬০ দিনের মধ্যে আসামী গ্রেফতার

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২ বৃহস্পতিবার, ২০২১, ০৯:১৩ অপরাহ্ণ
বরিশালে আলোচিত দুই হত্যাকাণ্ডের ৬০ দিনের মধ্যে আসামী গ্রেফতার

শামীম আহমেদ ॥ বরিশালে আলোচিত ব্যাংক কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শদকে হত্যাসহ চুরি ও ডাকাতির পৃথক দুটি ঘটনায় আন্তঃজেলা ডাকাত চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। বৃহষ্পতিবার (০২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার কার্যালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান (বিপিএম-বার) বলেন, গত ৩ জুলাই রাতে বরিশাল নগরের এয়ারপোর্ট থানাধীন ফিসারী রোড এলাকায় মনোয়ার হোসেনের বাড়িতে ডাকাতি সংগঠিত হয়। যে ঘটনায় নগদ ৫৩ হাজার টাকা ও ১৪ ভরি স্বর্ণালংকার লুন্ঠিত হয়। এ ঘটনায় ৫ জুলাই এয়ারপোর্ট থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে একটি ডাকাতি মামলা দায়ের হয়।

অপরদিকে একই থানাধীন কাশিপুর চৌহঠা এলাকায় সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শেদ এর বাড়িতে ১১ আগস্ট রাতে চুরিসহ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। যে ঘটনায় সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শেদকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনাতেও অজ্ঞাত আসামী করে এয়ারপোর্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

তিনি বলেন, একটি ঘটনার সাথে অপরটির যোগসূত্রে না থাকলেও, ঘটনার কার্যপ্রণালী একই রকম হওয়ায় থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)কে ছায়া তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়। এরপর তারা তথ্য প্রযুক্তি ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পেশাদার ডাকাতদলের দুই সদস্য তরিকুল ইসলাম শাকিব (২৮) ও আলমগীর হাওলাদার (৪০) কে বরিশাল নগরের শের-ই-বাংলা সড়ক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

বিএমপি কমিশনার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, দুটি ঘটনার সাথে তারাসহ তাদের গ্রুপের অন্য সদস্যরাও জড়িত রয়েছে। এরপর তাদের দেয়া তথ্যানুযায়ী পটুয়াখালী জেলা থেকে ডাকাত দলের অপর সদস্য জামাল (৪২) কে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতি ও হত্যাকান্ডের ব্যবহৃত ঘর ভাঙ্গার যন্ত্রপাতি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ কমিশনার বলেন, আন্তজেলা এ ডাকাতদলে আরো ৫-৭ জন সদস্য রয়েছে বলে প্রামিকভাবে গ্রেফতারকৃতরা জানিয়েছে। তাদের বাকি সদস্য যারা ওই দুটি ঘটনার সাথে জড়িত তাদের গ্রেফতারে এবং লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারে অভিযান চলছে ।

তিনি আরো বলেন, এরা বরিশালের বিভিন্ন জায়গায় চুরি ও ডাকাতিসহ অধিক মাত্রার আরো কিছু অপরাধ ঘটিয়েছে। সেইসাথে প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী মানুষকে ভয় দেখানোর জন্য আগ্নেয়াস্ত্রসহ বিভিন্ন ধরণের অস্ত্রও ব্যবহার করে থাকে তারা। তাদের সংগঠিত অপরাধগুলোর সন্ধান বের করা, সেইসাথে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত সকল ধরণের সরঞ্জাম উদ্ধার করে সকলকে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছি আমরা।

এদিকে ওই তিন ডাকাতসদস্যকে এয়ারপোর্ট থানায় দায়েরকৃত দুটি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিকেলে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিদর্শক এ.আর মুকুল।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এনামুল হক, উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মনজুর রহমান, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম,অপারেশনস এন্ড প্রসিকিউশন) নাসরিন জাহান সহ বিএমপি পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]