চাকরি খুঁজতে বরিশালে গিয়ে ধর্ষণের শিকার বরগুনার কিশোরী

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৫ বুধবার, ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ণ
চাকরি খুঁজতে বরিশালে গিয়ে ধর্ষণের শিকার বরগুনার কিশোরী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চাকরির প্রলোভনে বরগুনার এক কিশোরীকে (১৭) বরিশালে ডেকে এনে একটি বাড়িতে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরী বাদী হয়ে উজিরপুর থানায় মামলা করেছে।

 

মামলায় বাবুগঞ্জ উপজেলার পাংশা এলাকার আব্দুস ছালাম হাওলাদারের ছেলে মাসুম হাওলাদারকে (৩২) একমাত্র আসামি করা হয়েছে। মাসুমের বাড়ি পাংশা এলাকায় হলেও তিনি দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে উজিরপুর উপজেলার হারতা বাজারের ব্রিজের পাশে স্বপন মণ্ডলের বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাড়ি বরগুনার তালতলী উপজেলায়। তার বাবা একজন দিনমজুর।

 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে বরিশাল সদর উপজেলার এক বান্ধবীর বাসায় চলে আসে ওই কিশোরী। বান্ধবীকে সে একটি চাকরি খুঁজে দিতে বলে। বান্ধবী ওইদিন সন্ধ্যায় তার পরিচিত মাসুম হাওলাদারের উজিরপুর উপজেলার হারতা বাজারের ভাড়া বাড়িতে নিয়ে যায়। রাতে মাসুম ওই কিশোরীকে চাকরি দেওয়ার প্রলোভনে ধর্ষণ করেন। সোমবার সকালে মাসুমের দ্বিতীয় স্ত্রী রুমানা আক্তার বিষয়টি জানতে পেরে কিশোরীকে দুই হাজার টাকা দিয়ে তাড়িয়ে দেন।

 

কিশোরী বাড়িতে না গিয়ে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানায় হাজির হয়ে বিষয়টি ওসিকে জানায়। ওসি বিষয়টি উজিরপুর থানা পুলিশকে জানান। পরে উজিরপুর থানায় ওই কিশোরীকে নিয়ে যাওয়া হয়। সোমবার রাতে সে বাদী হয়ে মাসুমের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করে।

 

উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আর্শাদ বলেন, ওই কিশোরী কিছুটা অসুস্থ থাকায় চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আসামি মাসুমকে গ্রেফতারে আজ দুপুরে তার ভাড়া বাসায় তল্লাশি চালানো হয়। তবে এর আগেই তিনি সেখান থেকে পালিয়ে গেছেন। তাকে গ্রেফতারে পুলিশের একাধিক দল কাজ করছে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]