ব্লুটুথ স্যান্ডেল দিয়ে নকল শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায়

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৭ সোমবার, ২০২১, ০৩:২৫ অপরাহ্ণ
ব্লুটুথ স্যান্ডেল দিয়ে নকল শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের রাজস্থানে সরকারি স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় নকল করতে গিয়ে গ্রেফতার হয়েছেন পাঁচ জন পরীক্ষার্থী। পরীক্ষায় নকল করতে গিয়ে ধরা পড়ার পর গ্রেফতার হন তারা। তবে অভিযুক্তদের নকল করার পদ্ধতি দেখে চোখ কপালে উঠেছে পুলিশেরও। স্যান্ডেলের মধ্যে ব্লুটুথ ডিভাইস লাগিয়ে পরীক্ষায় নকল করছিলেন তারা!

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, রোববার ছিল রাজস্থান এলিজিবিলিটি এক্সামিনেশন ফর টিচার্স (রিট)-এর পরীক্ষা। সেই পরীক্ষায় আজমিরে চপ্পল বা স্যান্ডেলের ভেতর বসানো ব্লুটুথ ডিভাইস দিয়ে নকল করায় এক পরীক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ। এরপর একই রকম ভাবে নকল করতে গিয়ে বিকানের এবং সীকর থেকেও কয়েক জনকে গ্রেফতার করা হয়।

রতনলাল ভার্গব নামে রাজ্যটির এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘স্যান্ডেলের সোলের মধ্যে ফোন এবং ব্লুটুথ ডিভাইস ভরে পরীক্ষার হলে এসেছিলেন ওই পরীক্ষার্থীরা। আর কানে একটি যন্ত্র ছিল। পরীক্ষা হলের বাইরে থাকা কেউ অভিযুক্তদের সাহায্য কর‌ছিলেন।’

পুলিশ জানিয়েছে, অনেক মেধা খাটিয়ে বানানো হয়েছে নকলের কাজে ব্যবহার করা এই স্যান্ডেল। প্রায় দুই লাখ টাকার বিনিময়ে পরীক্ষার্থীদের কাছে এই চপ্পল বিক্রি করা হয়েছে বলেও জানতে পেরেছে পুলিশ।

 

কিন্তু পরীক্ষা চলার সময় কীভাবে এই নকলের ঘটনা আর নকলকারী চক্র সামনে এলো? এ ব্যাপারে আজমিরের পুলিশ কর্মকর্তা জগদীশচন্দ্র শর্মা বলেছেন, ‘চপ্পলের ভেতর ব্লুটুথ ডিভাইস থাকা এক ব্যক্তিকে পরীক্ষার শুরুতেই গ্রেফতার করেছিলাম আমরা। তার মাধ্যমে জানতে পারি, যারা এ ভাবে নকল করছে তাদের সকলের সঙ্গে ওই ব্যক্তির যোগাযোগ রয়েছে।’

 

তিনি আরও বলেন, পরে পরিস্থিতি বিবেচনা করে সকল জেলার পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়। এরপর জুতা, স্যান্ডেল পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।’

রাজস্থানের সরকারি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার জন্য ‘রিট’ পরীক্ষায় পাশ করতে হয়। মোট ৩১ হাজার পদের জন্য এ বছর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন প্রায় ১৬ লাখ পরীক্ষার্থী।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]