নেছারাবাদে দুর্নীতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক হলেন বিদ্যালয়ের কমিটির সভাপতি!

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত নভেম্বর ১৪ রবিবার, ২০২১, ০৯:০৪ অপরাহ্ণ
নেছারাবাদে দুর্নীতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক হলেন বিদ্যালয়ের কমিটির সভাপতি!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নে এগারগ্রাম সম্মিলনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সাবেক সহকারি প্রধান শিক্ষক হান্নান শরীফ বিদ্যালয়টির এড্যাহক কমিটির সভাপতি হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাসুদেব মন্ডলের ছত্রছায়ায় তিনি এ্যাডহক কমিটিতে সভাপতি পদে স্থান পেয়েছেন বলে অভিযোগ প্রতিষ্ঠানটির শুভাকাঙ্খিদের। ২০১২ সালের ১০ সেপ্টম্বর সহকারি শিক্ষক হান্নান শরীফ দুর্নীতির অভিযোগে ওই বিদ্যালয় থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

 

বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগকালিন ভিবিন্ন সময়ে বিদ্যলয়ের উন্নয়নকল্পে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের নিকট থেকে উন্নয়ন সহায়তার নামে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। ২০১২ সালে গত ১২ সেপ্টম্বর দাখিলকৃত বিদ্যালয়ের তিন সদস্যর তদন্ত কমিটির এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানাগেছে।

 

বিদ্যালয়ের একাধিক শুভাকাঙ্খি সূত্রে জানা যায়, হান্নান শরীফ এগার গ্রাম সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারি প্রধান শিক্ষক পদে দায়িত্ব পালন করতেন। সে সময়ে অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগকালিন ভিবিন্ন সময়ে বিদ্যলয়ের উন্নয়নকল্পের কথা বলে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের থেকে উন্নয়ন সহায়তার নামে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেন। পরে শিক্ষকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২০১২ সালের ১০ সেপ্টম্বর তাকে বিদ্যালয় থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে তিন সদস্যর একটি তদন্ত কমিটি গঠন হয়। তদন্তে তার বিরুদ্ধে বিদ্যালয় থেকে তার বিরুদ্ধে ১ লক্ষ ২৪ হাজার টাকা দুইশত টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ প্রমানিত হয়।

নাম না প্রকাশ শর্তে বিদ্যালয়ে একাধিক ব্যক্তি জানান, দুর্নীতির দায়ে তিনি বিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত হয়ে ছিলেন। রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে তিনি ওই বিদ্যালয়ে পূনরায় স্বপদে যোগদান করে বিদ্যালয় থেকে অবসরে যান। এখন আবার সেই দুর্নীতিবাজ হান্নান শরীফ বিদ্যলয়ের কমিটিতে এসেছেন। বিদ্যালয়ের বর্তমান প্রধান শিক্ষকের ছত্রছায়ায় বিদ্যালয়ের একটি গুরুপ্তপূর্ন পদে স্থান পেয়েছেন। তবে কোন যোগ্যতার মাপকাঠিতে হান্নান শরীফকে বিদ্যালয়ের এ্যাডহক কমিটিতে নেওয়া হয়েছে তার কোন সদউত্তর দিতে পারেননি প্রধান শিক্ষক বাসুদেব মন্ডল।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাসুদেব মন্ডল জানান, বিদ্যালয়ের নবগঠিক এডহক কমিটির বিষয়ে আমার কাছে কেউ কোন প্রকার অভিযোগ করেননি। এডহক কমিটির সভাপতির দুর্নীতি বা অনিয়মের কোন বিষয় আমার জানা নাই। তিনি প্রভাব খাটানোর মত লোক না তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ থাকলে তিনি কখোনোই কমিটিতে আসতে পারতেন না।

বিদ্যালয়ের বর্তমান এডহক কমিটির সভাপতি হান্নান শরীফ জানান, একটি কুচক্রী মহল দীর্ঘদিন ধরে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে আসছে। আমাকে ফাসানোর জন্য এবং বিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য তারা এখনো তৎপর।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]