দশমিনায় ইউনিয়ন পরিষদকে টর্চার সেল বানিয় চেয়ারম্যানের নির্যাতন! হাতিয়ে নেয় কোটি কোটি টাকা!

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ৩ সোমবার, ২০২১, ০৫:০০ পূর্বাহ্ণ
দশমিনায় ইউনিয়ন পরিষদকে টর্চার সেল বানিয় চেয়ারম্যানের নির্যাতন! হাতিয়ে নেয় কোটি কোটি টাকা!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ইউনিয়ন পরিষদকে টর্চার সেল বানিয়ে ইউপি সদস্যদের নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার মো. আনোয়ার হোসেন মৃধা নামে এক ইউপি চেয়ারম্যানর বিরুদ্ধে।

টর্চার সেলে নির্যাতন ও বিভিন্ন প্রকল্পে চেয়ারম্যান জোর করে স্বাক্ষর নেন- এমন অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৮ জন সদস্য রোববার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বহরমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন মৃধা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত জনগণের কল্যাণে কোনো কাজ করেননি। পরিষদের সদস্যদের স্বাক্ষর জোরপূর্বক নেন ও স্বাক্ষর জালজালিয়াতি করেন। বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের জন্য কথা বললে হুমকি-ধমকি দেন চেয়ারম্যান।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, গত ১৮ এপ্রিল অফিস চলাকালে চেয়ারম্যানের কাছে টিআর,কাবিখা, জেলেদের চাল ও রেশন কার্ড পরিবর্তনের কারণ চানতে চাইলে তিনি ইউপি সদস্যদের হুমকি-ধমকি দেন এবং ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থিত তার টর্চার সেলে নিয়ে ইউপি সদস্যদের নির্যাতন করেন। এছাড়াও তিনি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত সদস্যদের পাশ কাটিয়ে তার নিজস্ব বাহিনী দিয়ে ভিজিডি, ভিজিএফ, এলজিএসপি, এডিপিসহ বিভিন্ন ভাতার তালিকা ও প্রকল্প তৈরি করে কাজ করেন; যা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্যদের জন্য অপমানজনক বলে ওই ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নাসির উদ্দিন জানান।

অভিযোগের বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন মৃধার কাছে বক্তব্যর জন্য ফোন করা হলে মোবাইল ফোনে জানান, আপনাদের যা মন চায় তাই ইচ্ছেমতো বক্তব্য দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আল-আমিন জানান, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আমি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এখনও তাকে ডাকিনি। দেখি কী ব্যবস্থা নেয়া যায়।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃbarishalcrimetrace@gmail.com