অর্থদণ্ডের পরও ভাঙা চিমনি দিয়ে পোড়ানো হচ্ছে ইট!

Barisal Crime Trace -IS
প্রকাশিত জানুয়ারি ১৮ মঙ্গলবার, ২০২২, ০৯:৫৩ অপরাহ্ণ
অর্থদণ্ডের পরও ভাঙা চিমনি দিয়ে পোড়ানো হচ্ছে ইট!

বরিশাল ক্রাইম ট্রেস ডেস্কঃ বরগুনার আমতলী উপজেলার ৭টি অবৈধ ড্রাম চিমনী ইটভাটায় অর্থদণ্ড ও চিমনি ভেঙে ভাটা বন্ধের ২ দিন পরে পুনরায় ওই ভাটাগুলো চালু করেছে ইটভাটার মালিকরা। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসীরা দ্রুত স্থায়ীভাবে ইটভাটাগুলো বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

আমতলী উপজেলার ৭টি অবৈধ ড্রাম চিমনি ইটভাটা এডিবি ব্রিকস, মৃধা ব্রিকস, ফাইভ স্টার ব্রিকস, এমকেএস ব্রিকস, এইচআরটি ব্রিকস, এসএসবি ব্রিকস ও এমসিকে ব্রিকসে কাঠ দিয়ে অবৈধভাবে ইট পুড়ে আসছে। গত রবিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘুরে ঘুরে বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন হক ওই ইট ভাটায় অভিযান চালায়। ওই সময় তিনি প্রতিটি ভাটাকে ২ লক্ষ করে মোট ১৪ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড করে ভাটাগুলোর ড্রাম চিমনি ভেঙে ইট পোড়ানো বন্ধ করার নির্দেশনা প্রদান করেন। এর ২ দিন পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অর্থদণ্ড ও বন্ধের নির্দেশনা অমান্য করে ভাটা মালিকরা পুনরায় ইট পোড়ানো শুরু করে। যা নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত স্থায়ীভাবে ইটভাটা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, ভাটা শ্রমিকদের বেতন-ভাতা দেওয়ার অযুহাতে বন্ধ ড্রাম চিমনি ইটভাটার মালিকরা পুনরায় তাদের ইটভাটা চালু করে ভাঙা চিমনিতেই ইট পোড়াচ্ছেন।

মৃধা ইটভাটার ম্যানেজার মো. জসিম উদ্দিন বলেন, ভাটা শ্রমিকদের বেতন দিতেই আবার তারা ভাটায় ইট পোড়ানো শুরু করেছেন। তবে তারা দ্রুত ইটভাটা বন্ধ করে দেবেন বলে জানায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক জন এলাকাবাসী বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইটভাটা বন্ধ ও জরিমানা করে ড্রাম চিমনি ভেঙে চলে যাওয়ার ২ দিন পরেই ইটভাটার মালিকরা পুনরায় ভাঙা চিমনি দিয়ে ইট পোড়াচ্ছেন। তারা আরো বলেন, মনে হচ্ছে ম্যাজিস্ট্রেটের চেয়েও ইট ভাটার মালিকরা অনেক শক্তিশালী। নইলে কিভাবে বন্ধ ইটভাটায় আবার ইট পোড়ানো শুরু হলো। তারা দ্রুত স্থায়ীভাবে ইটভাটা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আব্দুল হালিম মুঠোফোনে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গিয়ে ৭টি ড্রাম চিমনি ইটভাটায় জরিমানা ও চিমনি ভেঙে তা বন্ধ করে দিয়েছে। পুনরায় চালু করলে আবারো তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]