দৌলতখানে অগ্নিকান্ড ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই,ঘটনাস্থল পরিদর্শন এমপি মুকুলের

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ১৫ শনিবার, ২০২১, ১১:৪৪ অপরাহ্ণ
দৌলতখানে অগ্নিকান্ড ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই,ঘটনাস্থল পরিদর্শন এমপি মুকুলের

মোঃ হাছনাইন,দৌলতখান প্রতিনিধি ।। ভোলার দৌলতখানে একটি ডায়াগনোস্টিক সেন্টারসহ ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

 

 

তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের টিম আসার আগেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ভস্মিভূত হয়। শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় দৌলতখান পৌর শহরের ৩ নং ওয়ার্ডের উত্তর মাথায় জৈনপুরী পীর সাহেবের বাড়ির সামনের একটি মুদি দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে।

 

 

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা দাবী করেন, আগুনে তাদের দেড় কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে।

 

প্রাথমিকভাবে অগ্নিকা-ের কারণ জানা যায়নি। তবে স্থানীয়দের ধারণা- বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রথমে অলিউল্যাহ্র মুদি দোকানে আগুন জ¦লতে দেখেন। স্থানীয়রা আগুন নিভাতে প্রানান্ত চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। বার বার ফোন করেও ঘটনাস্থল থেকে দুই কিলোমিটার দুরে অবস্থিত ফায়ার সার্ভিসের কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।

 

অপরদিকে বিদ্যুৎ বিভাগকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে এলাকাবাসী শত ফোন করেও কোন সাড়া পায়নি। আধা ঘন্টা পরে ফায়ার সার্ভিসের টিম আসার পূর্বেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, ফায়ার সার্ভিস ভস্মিভূত স্থানে কার্যক্রম শুরু করার পর বিদ্যুৎ বিভাগ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে।

 

পুড়ে যাওয়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে, হেনা বেগমের নিউ দৌলতখান ডায়াগনোস্টিক সেন্টার, রিপনের ফাস্টফুডের দোকান, আলমগীর ডাক্তারের অসুধের দোকান, অলিউল্যাহ্র মুদি দোকান, করিমের ভুসা মালের আড়ৎ ও মিন্টুর একটি খালি ঘর।

 

এ ব্যাপারে ফোন করলে দৌলতখান ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান সাইদুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, স্থানীয়দের ফোন পাওয়ার সাথে সাথেই আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই। দৌলতখান পল্লী বিদ্যুতের আবাসিক প্রকৌশলী আবদুর রশিদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাকে কেউ ফোন করেনি। একজন লোক আসার সাথে সাথেই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

 

শনিবার দুপুরে ভোলা-২(দৌলতখান-বোরহানউদ্দিন) আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের সার্বিক সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আলম খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ তারেক হাওলাদার, দৌলতখান পৌরসভার মেয়র জাকির হোসেন তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন জাহাঙ্গীর, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক গোলাম নবী নবু, সাংগঠনিক সম্পাদক হামিদুর রহমান টিপু, অর্থবিষয়ক সম্পাদক আবদুল হাই, পৌর আওয়ামী লীগ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, পৌর ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাসান মাহমুদ প্রমুখ ।




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]