রাষ্ট্রপক্ষ চেয়েছে রোজিনার জামিন হোক: তথ্যমন্ত্রী

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত মে ২৩ রবিবার, ২০২১, ০৫:৫৪ অপরাহ্ণ
রাষ্ট্রপক্ষ চেয়েছে রোজিনার জামিন হোক: তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা- তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, রোজিনার (সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম) জামিন হওয়ায় আমিও সন্তোষ প্রকাশ করছি। কারণ রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের কোনো বিরোধিতা করেনি। অর্থাৎ রাষ্ট্রপক্ষ চেয়েছে তার জামিন হোক।

রোববার (২৩ মে) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সংগঠন বিএফইউজে, জাতীয় প্রেসক্লাব, ডিইউজে, ডিআরইউ, ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার এবং বিএসআরএফের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে তিনি এ কথা বলেন।

সাংবাদিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, আমি আশা করব, জামিন হওয়ার পর সমস্ত ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। আপনাদের মনের ক্ষোভ ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছেন। আপনারা আবার আগের মতো কাজে ফেরত যাবেন, কাজকর্ম করবেন সেটিই আমাদের প্রত্যাশা। আমাদের কাজ করতে হবে, একই সঙ্গে আইনও মানতে হবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত যাতে হয়, সে জন্য তিনি প্রথম থেকেই সচেষ্ট ছিলেন। এখনো সচেষ্ট আছেন। বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সচেষ্ট থাকবেন। তদন্তের মাধ্যমে সত্যটা বেরিয়ে আসবে। রোজিনা ইসলামের সঙ্গে অন্যায় আচরণ হয়ে থাকলে সেটিও তদন্তে বেরিয়ে আসবে। আর তাঁর সঙ্গে যদি কোনো অন্যায় আচরণ হয়ে থাকে, তাহলে সেটি অবশ্যই গ্রহণযোগ্য নয়, নিন্দনীয়।

অফিশিয়াল সিক্রেসি আইন ভারত, পাকিস্তানসহ আরও ৪০টি দেশে আছে দাবি করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কাজ করতে হবে, তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিত করতে হবে। আইন মানতে হবে।’

‘আমি মন্ত্রী। আমি যদি কোনো অফিসে যাই, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের অফিসে গিয়ে তাদের অনুমতি ছাড়া তাদের কোনো গোপনীয় নথি থেকে কোনো কাগজপত্র আমার পজেশনে নিই, নিশ্চয় সেটি বেআইনি। এটি অপরাধ। সে ক্ষেত্রে ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে।’

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে সেদিন রোজিনা ইসলামের সঙ্গে কী ঘটেছিল সে বিষয়ে তদন্ত চলছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এখানে কী ঘটেছিল সেটি তদন্ত সাপেক্ষ। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য হচ্ছে, এ ধরনের ঘটনা সেখানে ঘটেছিল, তাই তারা মামলা করেছে।‘




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]