উজিরপুরে হারতায় গভীর রাতেও জনসার্থে আ’লীগ সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস

Barisal Crime Trace -HR
প্রকাশিত এপ্রিল ১১ রবিবার, ২০২১, ১১:১২ অপরাহ্ণ
উজিরপুরে হারতায় গভীর রাতেও জনসার্থে আ’লীগ সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস

তালহা জাহিদঃ উজিরপুর উপজেলা হারতা ইউনিয়নের বড় ছোট একাধিক ব্রিজের নামা-ওঠার ঢালের এমন মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ খ্যাত যা দূর থেকে বোঝা যায় না বিশেষ করে অজানা চালকদের ক্ষেত্রে একাধিক দুর্ঘটনার নজির রয়েছে।

 

এখানে আর একটি কথা না বললেই নয়, বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গ্রামীণ জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন ও গ্রামকে শহরে রুপান্তরিত এবং আধুনিকায়ন করতে ব্যপক উন্নয়ন মূলক কাজ করা হয়েছে। উপজেলা হারতা সাতলা ব্রিজ’সহ বেশ কিছু মেগা বাজেটের কাজ করা হয়।

 

এতে উজিরপুর হারতা থেকে বানারীপাড়া, ও সাতলার থেকে গোপালগঞ্জে যাতায়াতের সাথে সাথে নদীর দুই পাড়ে মানুষের জীবন জীবিকার মান উন্নয়ন হয়েছে যেমন সত্যি, তেমনি আরো একটি সত্যি আছে, অব্যস্থাপনা ও রক্ষনা বেক্ষনের অভাবে এতো খরচ করেও সাধারণ মানুষের বকাঝকা শুনতে হয় অহরহ। উজিরপুর উপজেলার পশ্চিমের বিল অঞ্চলের উন্নয়নের দৃষ্টান্ত হিসাবে বিশেষ করে হারতা- সাতলা ব্রিজ নির্মান।

 

কিন্তু সরকার এত এত কোটি টাকা খরচ করে জনসাধারণের জন্য কাজ করছে উল্টো সাধারণ মানুষ, যাত্রী – চালকরা বকাবকি করে থাকে প্রতিনিয়ত, এখন বলতে হবে “লাক্ষ টাকার বাগান খায় এক টাকার ছাগলে” হারতা মূল ব্রিজ হতে দুই পাশের এপ্রোচ ঢালে কমপক্ষে প্রায় ৫-৭ ইঞ্চির ক্ষাতের কারনে প্রায়ই মারাত্মক দূর্ঘটনার কথা শোনা যায়। অন্যদিকে সাতলা ব্রিজের ঢালতো নায় যেন বড় বড় গর্ত!

 

হারতা ব্রিজের যাতায়াত পথে গভীর রাতে আশর্যজনক ভাবে জনসাধারণের সমস্যা কথা চিন্তা করে নিজ পৃষ্ঠপোষকতায় কাজ করতে দেখা মিললো হারতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান সুনীল কুমার বিশ্বাস’র সাথে।

 

তিনি বললেন, এটা অতি সামান্য একটি কাজ কিন্তু এর ফলে অনেক বড় ক্ষতি হতে পারে, এমনকি জীবনও চলে যেতে পারে। তাই গুরুত্বের সঙ্গে কাজটা করা উচিত মনে করে করছি।’

 

 

 




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]