প্রধানমন্ত্রীর কাছে শিক্ষকের আকুতি

Barisal Crime Trace
প্রকাশিত এপ্রিল ২৪ শনিবার, ২০২১, ০৭:৪৯ অপরাহ্ণ
প্রধানমন্ত্রীর কাছে শিক্ষকের আকুতি

নিউজ ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠায় আর্থিক আবেদন চেয়ে আকুতি জানিয়েছে এক মাদ্রাসা শিক্ষক। ৫৬ বছর বয়সী ওই শিক্ষকের নাম মো. ছাইফুজ্জামান। তিনি বঙ্গবন্ধুর নামে একটি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করতে চান। পাঠকদের উদ্দেশ্যে ও তার অনুরোধে আবেদনটি বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, স্বাধীনতার মহানায়ক, গণমানুষের নন্দিত নেতা, জাতীর জনক শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট আমার আকুল আবেদন।

বিষয়: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সালাফিয়া মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠায় আর্থিক অনুদান চেয়ে আবেদন প্রসঙ্গে।

মহাত্নন, যথাযথ শ্রদ্ধা ও সম্মান জানানোর পর আরজ এই যে আমি নিম্ন স্বাক্ষরকারী মু.ছাইফুজ্জামান পিতা মু.ইউনুছ আলি সরকার গ্রাম+ডাক+উপজেলা-জলঢাকা, জেলা নীলফামারী। একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতার কাজে নিয়োজিত আছি। আমার বর্তমান বয়স ৫৬ প্রায়। আমি আমার জীবনের এ শেষ লগ্নে এসে আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, স্বাধীনতার মহানায়ক, গণমানুষের নন্দিত নেতা, জাতীর জনক শেখ মুজিবুর রহমানের নামে তাঁর পরকালীন মুক্তি কামনায় নাজাতের ওয়াসিলা স্বরূপ তাঁর নাম যুক্ত করে নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলার ডালিয়া রোড সংলগ্ন একটি জায়গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সালাফিয়া মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার এক দৃঢ় সংকল্প গ্রহণ করেছি। এই প্রতিষ্ঠানটি নির্মাণের জন্য নুন্যতম বিশ শতক জমি প্রয়োজন ,আমার আকাঙ্ক্ষা হলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি এই গরীবের এই আকাঙ্ক্ষা পূরণে দয়া পরবশ হয়ে বিশ শতক জমি ক্রয় করে ভবন নির্মাণ করে দিতেন তাহলে জাতির জনকের নামে এ দ্বীনি প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তোলা সম্ভব হতো। আমার আবেগ, আমার শ্রদ্ধা ও ভালবাসার মূল্যায়ন অবশ্যই কামনা করছি। সবিনয়ে আপনার নিকট শ্রদ্ধা ও তাজিমের সাথে সামান্য এইটুকু সহায়তা কামনা নিয়ে এই ক্ষুদে বার্তা আপনার বরাবরে প্রেরণ করলাম।

অতএব, বিনীত প্রার্থনা এই যে বঙ্গবন্ধুর নামে গড়ে তোলার জন্য এ প্রতিষ্ঠানটির নামে আর্থিক বরাদ্দ দিয়ে বাধিত করতে মহোদয়ের একান্ত আজ্ঞা হয়।

বিনীত নিবেদক

মু. ছাইফুজ্জামান

প্রভাষক

জলঢাকা, নীলফামারী




আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বরিশাল ক্রাইম ট্রেস”কে জানাতে।
ই-মেইল করুনঃ[email protected]